1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরিয়া সংকট নিরসন সুদূর পরাহত?

সিরিয়া সংকট নিরসনের কিছুটা আশা জাগিয়েছিল জেনেভার এই শান্তি আলোচনা৷ কিন্তু শুরুর আগেই প্রায় উবে যেতে বসে সম্ভাবনা৷ সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট কোনো প্রতিনিধি না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়ায় ফিরে এসেছে অচলাবস্থা৷

সিরিয়ায় যুদ্ধ শুরুর পর থেকে যতবার শান্তি স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে ততবারই সেই প্রয়াস ভেস্তে গিয়ে আবার দেখা দিয়েছে অচলাবস্থা৷ জারি থেকেছে যুদ্ধ৷ প্রতিদিন অনেক মানুষের মৃত্যুর গ্লানি বজায় থেকেছে৷ এমন চলতে চলতে সিরিয়া যুদ্ধে নিহতের সংখ্যা আড়াই লাখ ছাড়িয়েছে৷ গৃহহারাও হয়েছে লাখো মানুষ৷ ভয়াবহ এই যুদ্ধ থামিয়ে সিরিয়া এবং সিরিয়ার আশপাশে শান্তি ফেরানোর উদ্দেশ্যে শুক্রবার জাতিসংঘের উদ্যোগে জেনেভায় যে শান্তি আলোচনা হচ্ছে তাতে বাশার আল-আসাদের বিরোধী পক্ষের বড় একটি অংশই অংশ নিচ্ছে না৷ ফলে আলোচনার ফলপ্রসূতা এবং সাফল্য নিয়েই দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা৷

সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট জানিয়ে দিয়েছে আসাদ সরকার নিরীহ মানুষ হত্যা বন্ধ না করাসহ জোটের অন্যান্য শর্ত মেনে না নেয়া পর্যন্ত তারা জেনেভার আলোচনায় কোনো প্রতিনিধি পাঠাবে না৷

সিরিয়া বিষয়ে জাতিসংঘের দূত স্টেফান ডে মিস্টুরা অবশ্য শুক্রবারের শান্তি আলোচনা নিয়ে আশাবাদই ব্যক্ত করেছেন৷

তবে সিরিয়ায় শান্তি স্থাপনের এ প্রয়াস সাফল্যের মুখ দেখবে এমন সম্ভাবনা ক্ষীণ বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা৷ আলোচনার খুব গুরুত্বপূর্ণ পক্ষ তুরস্ক জানিয়েছে এ আলোচনায় কুর্দিদের ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন পার্টি, অর্থাৎ পিওয়াইডি-র অংশ গ্রহণ তারা মেনে নেবেনা৷ অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়া চায় আলোচনায় কুর্দিদেরও অংশ গ্রহণ থাকুক৷ তুরস্ক সাফ জানিয়ে দিয়েছে, পিওয়াইডি থাকলে এ শান্তি আলোচনা তারা বর্জন করবে৷ সব মিলিয়ে এই যখন পরিস্থিতি তখন প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক – সিরিয়া সংকট নিরসন সুদূর পরাহত?

এসিবি/ডিজি (রয়টার্স, ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়