1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরিয়ায় কে সন্ত্রাসবাদী, কে নয়?

গৃহযুদ্ধ বন্ধ করে সিরিয়ায় শান্তি ফেরাতে আগামী ২৫শে জানুয়ারি জাতিসংঘের উদ্যোগে এক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে৷ কিন্তু বিদ্রোহীদের মধ্যে কোন গোষ্ঠী সন্ত্রাসবাদী, কোনটি নয় – তা স্থির করতে হিমশিম খাচ্ছেন কূটনীতিকরা৷

সিরিয়ার জটিল রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে কতগুলি গোষ্ঠী ঠিক কোন উদ্দেশ্য নিয়ে কার সহায়তায় কার বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে, তা বোঝা সত্যি বেশ কঠিন৷

শুধু দুটি বিষয় স্পষ্ট৷ ক্ষমতাসীন বাশার আল-আসাদ প্রশাসনকে ভবিষ্যতে ক্ষমতায় দেখতে চায় না অ্যামেরিকার নেতৃত্বে জোট৷ রাশিয়া অবশ্য আসাদেরই পক্ষে৷ তথাকথিত ইসলামিক স্টেট অবশ্য সব পক্ষের ঘোষিত শত্রু৷ তবে গোপনে তাদের সঙ্গে বোঝাপড়ার অভিযোগও শোনা যায়৷

এই দুই পক্ষ ছাড়া বাকি বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলির ভূমিকা নিয়েই যত গণ্ডগোল৷ শান্তি আলোচনায় সরকার ও বিদ্রোহীদের মধ্যে অস্ত্রবিরতির প্রশ্নে ঐকমত্য সম্ভব হলেও আইএস ছাড়াও অন্য কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া হবে, তাও স্থির করতে হবে৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু সূত্রের ভিত্তিতে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জাতিসংঘের উদ্যোগ সম্পর্কে আগাম আলোকপাত করেছে৷

বর্তমান খসড়া অনুযায়ী ৮টি নীতির ভিত্তিতে অস্ত্রবিরতির এক কাঠামো সৃষ্টি করা হবে৷ আইএস ছাড়া আল-কায়েদার ঘনিষ্ঠ আল-নুসরা ফ্রন্ট-এর মতো সন্ত্রাসী সংগঠনকে আলোচনায় ডাকা হচ্ছে না৷ কিন্তু সমস্যা দেখা দিয়েছে জয়শ আল-ইসলাম-এর মতো জঙ্গি গোষ্ঠী নিয়ে৷ তারা শান্তি আলোচনায় অংশ নিতে এগিয়ে এসেছিল বটে, কিন্তু গত শুক্রবার বিমান হামলায় তাদের নেতা নিহত হয়েছে৷ এই গোষ্ঠী হামলার জন্য সরাসরি রাশিয়াকে দায়ী করেছে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরানের মতো দেশ সিরিয়া সংক্রান্ত সম্মেলনে অংশ নেবে৷

এসবি/ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়