1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আফগান নারীরা ঘরেই বেশি নিপীড়নের শিকার'

আন্তর্জাতিক নারী সংগঠন ডাব্লিউএফডাব্লিউআই মনে করে, জননিরাপত্তা ছাড়া আফগানিস্তানে কাঙ্খিত উন্নয়ন সম্ভব নয়৷ অথচ তালেবানের দাপট আবার বাড়ছে৷ নারীদের নিয়ে তাই আরো বেশি শঙ্কিত সংস্থাটি৷

রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব শঙ্কার কথা জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক নারী অধিকার সংগঠন ‘উইমেনস ফর উইমেন ইন্টারন্যাশনাল' ডাব্লিউএফডাব্লিউআই -এর যুক্তরাজ্য অঞ্চলের নির্বাহী পরিচালক ব্রিটা ফার্নান্দেস শ্মিড্ট৷ সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, আফগানিস্তানে সাম্প্রতিককালে আবার ইসলামি জঙ্গি সংগঠনগুলোর প্রভাব বেড়েছে৷ কিছু অঞ্চলে তালেবান আবার পূর্ণ শক্তি নিয়ে ফিরে আসতে শুরু করেছে৷ সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সেনা কর্তৃপক্ষও জানিয়েছে, আফগানিস্তানের এক তৃতীয়াংশ অঞ্চল এ মুহূর্তে তালেবানের নিয়ন্ত্রণে৷ কোথাও কোথাও তালেবান জঙ্গিরা ইসলামিক স্টেটে যোগ দিয়ে নতুনভাবে সংগঠিত হচ্ছে৷

তবে ব্রিটা ফার্নান্দেস শ্মিড্ট জানান, তালেবান নিয়ন্ত্রিত এলাকায় নারীরা কোণঠাসা অবস্থায় থাকলেও নারী নির্যাতন আফগানিস্তানের সাধারণ পুরুষরাই বেশি করেন৷ ঘরে ঘরে চলছে নির্যাতন, নিপীড়ন৷

নারীরা মুখ বুঁজে সহ্য করছেন সব৷ আফগান নারীরা ধীরে ধীরে আরো কোণঠাসা হয়ে পড়ছে৷ব্রিটা ফার্নান্দেস শ্মিড্ট মনে করেন, নারী উন্নয়নের পদক্ষেপ আরো জোরদার না করলে আফগানিস্তানের সংকট আরো ঘণীভূত হবে৷

সাক্ষাৎকারে আফগানিস্তানে জননিরাপত্তা বৃদ্ধি এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নের গুরুত্বও তুলে ধরেছেন ব্রিটা ফার্নান্দেস শ্মিড্ট৷ তবে তিনি মনে করেন, নিরাপত্তার দিকে বেশি মনোনিবেশ করে ঢিলেঢালা উন্নয়ন কার্যক্রমে সন্তুষ্টি প্রকাশ করা ভুল৷ তাঁর মতে, ‘‘উন্নয়ন ছাড়া নিরাপত্তা সম্ভব নয়, আবার নিরাপত্তা ছাড়াও উন্নয়ন সম্ভব নয়৷ দুটো আসলে হাত ধরাধরি করেই চলে৷''

আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় নারীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান স্থাপনে সহায়তা করে ডাব্লিউএফডাব্লিউআই৷

এসিবি/জেডএইচ (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়