ভারতও শুল্ক বসালো মার্কিন পণ্যে | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 16.06.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

ভারতও শুল্ক বসালো মার্কিন পণ্যে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানিকৃত বেশ কিছু পণ্যে উচ্চ শুল্ক আরোপ করেছে ভারত৷ ধারণা করা হচ্ছে, ভারতকে দেয়া যুক্তরাষ্ট্রের জিএসপি সুবিধা প্রত্যাহারের জবাবেই পাল্টা এ পদক্ষেপ নিয়েছে মোদী সরকার৷

রোববার থেকে সিদ্ধান্ত কার্যকরের কথা৷ বাদাম ও আপেলসহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ২৮টি পণ্য ভারতের বাজারে প্রবেশ করতে হলে শুল্ক প্রদান করতে হবে৷

ভারত সরকারের এ পদক্ষেপে ক্ষতির মুখে পড়তে পারে যুক্তরাষ্ট্রের কৃষিপণ্য রপ্তানি খাত৷ দেশটির কৃষি বিভাগের তথ্য বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদিত বাদাম সবচেয়ে বেশি রপ্তানি হয় ভারতে৷ ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৫৪ কোটি ৩০ লাখ ডলারের বাদাম আমদানি করেছিল ভারত, যা যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বব্যাপী রপ্তানিকৃত মোট বাদামের অর্ধেক৷ শুধু তাই নয়, যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদিত আপেলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্রেতাও ভারত৷ দেশটি ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১৫ কোটি ৬০ লাখ ডলারের আপেল আমদানি করেছিল বলে জানিয়েছে অ্যামেরিকার কৃষি বিভাগ৷

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে ভারতকে দেয়া বিশেষ বাণিজ্য সুবিধা—জিএসপি প্রত্যাহার করে নেয় ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ উন্নয়নশীল দেশগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া বিশেষ বাণিজ্য সুবিধার সবচেয়ে বড় ভোক্তা ছিল ভারত৷ জিএসপির আওতায় দেশটি প্রতিবছর গড়ে সর্বোচ্চ পাঁচ দশমিক ছয় বিলিয়ন ডলারের পণ্য যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে শুল্কমুক্ত সুবিধায় রপ্তানি করেছে৷

সে হিসেবে, বাণিজ্য বিষয়ে দু'দেশের মাঝে চলমান এ অস্থিরতায় উভয় দেশই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে৷ এদিকে চলতি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট সেক্রেটারি মার্ক পম্পেও'র ভারত সফর করার কথা রয়েছে৷ গত সপ্তাহে এক আলোচনায় পম্পেও বলেন, ভারতের বাজারে যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য প্রবেশের বাধা দূর করতে ও চলমান বাণিজ্য অস্থিরতা নিরসনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আলোচনায় বসতে আগ্রহী৷

গত কয়েকবছর ধরেই ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের পারস্পরিক বাণিজ্যের আকার বাড়ছে৷ ২০১৮ সালে এ বাণিজ্যের আকার ছিল ১৪ হাজার ২শ' বিলিয়ন ডলার৷

আরআর/জেডএ (রয়টার্স, ডিপিএ)        

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন