বিশ্ব জুড়ে করোনায় আক্রান্ত দুই লক্ষ মানুষ | বিশ্ব | DW | 19.03.2020

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

করোনা ভাইরাস

বিশ্ব জুড়ে করোনায় আক্রান্ত দুই লক্ষ মানুষ

মোট আক্রান্ত ছাড়িয়ে গেল দুই লক্ষ। মোট মৃত আট হাজারেরও বেশি। করোনা পৌঁছল আফ্রিকার সাহারায়। বিশ্বের দরিদ্রতম অঞ্চলে।

চীনে যা হয়েছিল, ইটালিতে এ বার ঠিক সেই ঘটনাই ঘটতে শুরু করল। করোনায় আক্রান্ত হতে শুরু করলেন স্বাস্থ্যকর্মী এবং চিকিৎসকেরা। পরিসংখ্যান বলছে, সেখানে এখনও পর্যন্ত দুই হাজার ৬২৯ জন স্বাস্থ্যকর্মীর শরীরে করোনার সংক্রমণ ঘটেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ইটালিতে মৃত্যু হয়েছে আরও ৪৭৫ জনের। যার ফলে সে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেল প্রায় তিন হাজারে।

গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৩ হাজার মানুষ। মৃত আট হাজারেরও কিছু বেশি। বুধবার ফের সতর্কবার্তা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থার প্রধান ফের জানিয়েছেন, করোনা মানবতার সব চেয়ে বড় শত্রু। এর সঙ্গে লড়াই জারি রাখতে হবে। যদিও লড়াই করার মতো ওষুধ বা ভ্যাক্সিন এখনও আবিষ্কার হয়নি। বিশ্ব জুড়েই তার পরীক্ষা চলছে। তবে আগামী কয়েকমাসে ওষুধ বাজারে আসার কোনও সম্ভাবনা নেই।

ইটালির অবস্থা ভয়াবহ হলেও সে দেশের প্রশাসন করোনা প্রতিরোধে পরিকাঠামো গড়ে তুলতে পেরেছে। ইরানের অবস্থা আরও শোচনীয়। হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে সেখানে। দেশের বহু প্রভাবশালী ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত। মৃত্যু হয়েছে এক ধর্মীয় নেতার। রাস্তায় সেনা নামিয়ে দিলেও করোনার সঙ্গে লড়াই করার মতো পরিকাঠামো সেখানে তৈরি হয়নি বলেই বিশেষজ্ঞদের দাবি। পরিকাঠামো তৈরি না হওয়ার পিছনে সরকারের অপদার্থতা যেমন আছে, তেমনই ইরানের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার প্রভাবও রয়েছে। বিশ্বের বহু দেশ তাই দাবি করছে, এমন পরিস্থিতিতে ইরান এবং উত্তর কোরিয়ার উপর থেকে আপাতত নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নিক অ্যামেরিকা। মার্কিন ডেমোক্র্যাট সেনেটর বার্নি স্যান্ডার্সও ট্রাম্প প্রশাসনের কাছে একই আবেদন জানিয়েছেন। করোনা যাতে আরও দ্রুত ছড়াতে না পারে, তার জন্য ইরানও বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। প্রশাসন ঘোষণা করেছে ১০ হাজার বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হবে। যার মধ্যে রাজনৈতিক বন্দিও আছে।

ভিডিও দেখুন 03:00

ইউরোপে হাততালিতে করোনা যোদ্ধাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা

এরই মধ্যে এই প্রথম আফ্রিকার সাহারা অঞ্চল থেকে করোনায় মৃত্যুর খবর মিলেছে। পৃথিবীর দরিদ্রতম অঞ্চল হল সাহারা ভূখণ্ড। সেখানে করোনা ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হবে বলেই বিশেষজ্ঞদের ধারণা। অন্য দিকে, জার্মান চ্যান্সেলর জাতির উদ্দেশে ভাষণে বুধবার জানিয়েছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে এত বড় চ্যালেঞ্জ আসেনি। বৃহস্পতিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রীও জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন। ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। বাংলাদেশেও বুধবার একজনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। পাকিস্তানে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত মৃত দুই।

ফ্রান্স এবং স্পেনে করোনা ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত। গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে মৃত্যু হয়েছে ৮৯ জনের। মোট মৃতের সংখ্যা ২৬৪। এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত নয় হাজার ১৩৪ জন। অ্যামেরিকাতেও প্রতিদিন হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স, এপি, এএফপি)

সংশ্লিষ্ট বিষয়