বাংলাদেশে বন্যা দুর্গতদের ভয়াবহ খাদ্যাভাবের আশঙ্কা | বিশ্ব | DW | 24.08.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

বাংলাদেশে বন্যা দুর্গতদের ভয়াবহ খাদ্যাভাবের আশঙ্কা

বন্যার কারণে বাংলাদেশে ২ লাখেরও বেশি মানুষ খাদ্যাভাবে রয়েছে৷ বুধবার এ তথ্য জানিয়েছে জাতিসংঘ৷ দীর্ঘদিন ধরে খাবার সরবরাহ না করা গেলে এ সংকট ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে তারা৷

বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় বুধবার জানিয়েছে, এবারের বন্যায় দুই সপ্তাহে ১৩২ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ৭৫ লাখ মানুষ৷ এদিকে, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির বাংলাদেশের ডিরেক্টর ক্রিস্টা র‌্যাডার জানিয়েছেন, ‘‘বন্যা দুর্গতদের অনেকেই পুরোপুরি নিঃস্ব হয়ে গেছেন৷ বাড়িঘর, ফসল সব নষ্ট হয়ে গেছে তাদের৷''

এই মুহূর্তে এ সব মানুষের খাদ্যের দরকার, সেই সাথে তাদের দীর্ঘ সময়ের জন্য খাদ্যের সংস্থান না করা গেলে তাদের খাদ্য নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়বে বলেও জানান তিনি৷ বন্যার পানি কমে গেলেও খাবার এবং থাকার জায়গা না থাকায় এখনও অনেক মানুষ আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছে৷

দক্ষিণ এশিয়ায় বর্ষাকে আশীর্বাদ হিসেবে ধরা হয়৷ কারণ কৃষকদের ফলন ভালো হয় বৃষ্টিতে৷ কিন্তু প্রতিবারই জুলাই থেকে আগস্ট মাসের মধ্যে অতি বর্ষণে সৃষ্ট বন্যায় প্রাণহানিসহ অনেক সম্পদ নষ্ট হয়৷ স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন, এবারের বন্যা গত কয়েক বছরের ক্ষয়-ক্ষতিকে ছাড়িয়ে গেছে৷ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ১০ হাজার হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৬ লাখ হেক্টর জমির ফসল৷

ডাব্লিউএফপি আগামী তিন মাস ধরে প্রতি মাসে বাংলাদেশের বন্যা দুর্গত ১ লাখ বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী এবং দুঃস্থ পরিবারের সদস্যদের চার হাজার টাকা করে দিবে, যাতে তারা খাদ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য কিনতে পারে৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন