জার্মান সামরিক বাহিনীতে যৌন নিপীড়নের হার বেড়েছে ৮০ ভাগ | বিশ্ব | DW | 29.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মান সামরিক বাহিনীতে যৌন নিপীড়নের হার বেড়েছে ৮০ ভাগ

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৭ সালে জার্মান সামরিক বাহিনী বুন্ডেসভেরে ২৩৪টি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ করা হয়েছে৷ দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, অনেক অভিযোগই সন্দেহের বশে করা হয়েছে৷

জার্মানির ফুংকে মিডিয়া গ্রুপের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো এ রিপোর্ট করেছে৷ রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৭ সালে ধর্ষণ অথবা ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ এসেছে ১৪টি, যা আগের বছরের তুলনায় প্রায় তিনগুণ৷ ২০১৬ সালে সংখ্যাটি ছিল পাঁচ৷

২০১৬ সালে ১২৮টি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এসেছিল৷ ২০১৭-তে তা বেড়ে হয়েছে ২৩৪টি৷ ফুংকে মিডিয়ার রিপোর্ট বলছে, অভিযোগের সংখ্যা বাড়ার কারণ প্রথমত সদস্যদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে সংবেদনশীলতা বেড়ে যাওয়া, এবং দ্বিতীয়ত, সন্দেহ বেড়ে যাওয়া৷ এছাড়া পুরোনো কিছু অভিযোগের তদন্ত পুণরায় শুরু হওয়াও একটি কারণ৷

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী উরসুলা ফন ডেয়ার লাইয়েন গত বছর বলেছিলেন যে, সংখ্যা বেড়েছে মানে ঘটনা বেড়েছে তা নয়৷ বিষয়টি হচ্ছে আগের চেয়ে অভিযোগের সংখ্যা বেড়ে গেছে৷

সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র বলেন যে, যেসব অভিযোগে এসেছে তার মধ্যে ‘অপ্রত্যাশিতভাবে চুমু খাওয়া থেকে শুরু করে কাঁধ বা রানে হাত রাখা, এমনকি ধর্ষণ পর্যন্ত' আছে৷

গত নভেম্বরে হ্যামবুর্গে ২৯ বছর বয়সি এক কর্পোরালের বিরুদ্ধে দুই নারীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ খবরের শিরোনাম হয়েছে৷ জার্মান সংবাদপত্র ডেয়ার স্পিগেলের মতে, আরেক সেনা সদস্য ঘটনাটির ভিডিও ধারণ করছিলেন, কিন্তু প্রতিরোধ করেননি৷ ফেব্রুয়ারি নাগাদ এ ঘটনার তদন্ত শেষ হবে বলে জানিয়েছে ফুংকে রিপোর্ট৷ 

এই প্রথম জার্মান সামরিক বাহিনী পরিপূর্ণভাবে সন্দেহভাজন অভিযোগগুলোকে লিপিবদ্ধ করল৷ আগের বছরগুলোতে কীভাবে পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে, তা নিশ্চিত নয়৷

জার্মান সামরিক বাহিনীতে ৬০,০০০ সেনাসদস্য আছেন৷

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর অবস্থা আরো খারাপ৷ সেখানে ২০১৬ সালে মোট ৬ হাজার ১৭২টি ও ২০১৭ সালে ৬ হাজার ৮২টি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ পড়েছে৷

জেডএ/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন