1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: Imago-Images/S. Simon

ইউরোপে ফুটবল আবার গড়াচ্ছে মাঠে

২১ এপ্রিল ২০২০

জার্মানির বুন্দেসলিগা মে মাসের ৯ তারিখ মাঠে গড়াতে পারে৷ বৃহস্পতিবার বিষয়টি চূড়ান্ত হবে৷ ইউরোপের অন্য দেশগুলোও চাইছে তাদের মৌসুম শেষ করতে৷ তবে কবে থেকে তা সবাই নিশ্চিত নয়৷

https://p.dw.com/p/3bDHa

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারায় জার্মানি কিছু কিছু বিষয়ে কঠোর বিধিনিষেধ তুলে নিতে চাইছে৷ সেক্ষেত্রে নিরাপত্তাবিধি মেনে শিগগিরই ফুটবলও গড়াতে পারে মাঠে, এমন আভাস এরই মধ্যে পাওয়া গেছে৷ অর্থাৎ, দর্শক থাকবেন টিভিসেটের সামনে, গ্যালারিতে নয়৷ একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী স্থানীয় পত্রপত্রিকায় ইঙ্গিতও দিয়েছেন৷ তবে বার্তা সংস্থা ডিপিএ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার জার্মান ফুটবল লিগ কর্তৃপক্ষ ডিএফএল এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে৷ 

তবে রাজ্যভেদে অবস্থা ভিন্ন হতে পারে৷ নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়া ও বাভেরিয়া রাজ্য ৯ মে ফুটবল শুরুর পক্ষে৷ অন্য ১৪ রাজ্যের খবর এখনো জানা যায়নি৷ জার্মানিতে ৩ মে থেকে বেশ কিছু বিষয় শিথিল করার সিদ্ধান্ত হয়ে আছে৷ এসব বিষয় নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলোর সঙ্গে আগামী ৩০ এপ্রিল আবার বসবে৷

এদিকে মৌসুম শেষ করতে না পারলে কোটি কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে ক্লাবগুলো৷ কিকার ম্যাগাজিন বলছে, জার্মানির ১৩টি বুন্দেসলিগা ও দ্বিতীয় সারির ক্লাব ঋণখেলাপি হয়ে যাবে৷ 

অন্যদিকে, আগের ঘোষণা অনুযায়ী, কমপক্ষে জুন পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ৷ গত শুক্রবার প্রথমসারির ২০টি ক্লাবের সঙ্গে বসেছিল লিগ কর্তৃপক্ষ৷ তারা মৌসুম শেষ করার বিষয়ে একমত হয়েছে৷ তবে কবে থেকে তা শুরু হতে পারে এখনো সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি৷ এ সপ্তাহে এ নিয়ে আরো আলোচনা হবার কথা রয়েছে৷ যুক্তরাজ্য সরকার কমপক্ষে মে মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত লকডাউন রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ 

স্পেনের লকডাউন শেষ হবার কথা ২৫ এপ্রিল৷ প্রেসিডেন্ট পেদ্রো সানচেজ এরই মধ্যে সংসদ সদস্যদের এটি ৯ মে পর্যন্ত বাড়ানোর অনুরোধ করেছেন৷ দেশটির ফুটবল শুধু করোনার মারাত্মক আঘাতেই ভুগছে না, লা লিগার প্রেসিডেন্ট হাভিয়ের তেবেস ও স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালেসের মধ্যে দ্বন্দ্বও ভোগাচ্ছে৷ তবে আশার কথা হলো, স্পোর্টস কাউন্সিলের মধ্যস্থতায় দুই শীর্ষ ফুটবল কর্মকর্তা গত শনিবার মুখোমুখি হয়েছেন এবং নিজেদের মধ্যকার সমস্যা সমাধান করেছেন৷ ৬ জুন নাগাদ আবার গড়াতে পারে স্প্যানিশ ফুটবল৷

ইটালিতে সিরি আ-র সবশেষ ম্যাচটি হয় ৯ মার্চ৷ এর কয়েকদিন পরই পুরো দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়৷ করোনার অন্যতম ভয়াবহতার শিকার দেশটিতে কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল করা হতে পারে ৩ মে নাগাদ৷ সিরি আ-তে একেকটি দলের এখনো ১২-১৩টি করে ম্যাচ বাকি৷ এছাড়া বাকি রয়েছে ইটালিয়ান কাপের সেমিফাইনাল ও ফাইনাল৷ মে মাসের শেষ নাগাদ শুরু হতে পারে মৌসুমের বাকি খেলাগুলো৷ আর ৪ মে থেকেই অনুশীলন শুরু করার কথা জানিয়েছে দেশটির ফুটবল ফেডারেশন৷

এদিকে, ফ্রান্সের লিগ ওয়ানও শুরু হবার কথা জুনের মাঝামাঝি নাগাদ৷ সে হিসেবে আগষ্টের আগে শেষ হবে না মৌসুম৷ দেশটিতে আপাতত ১১ মে পর্যন্ত লকডাউন চালু রয়েছে৷

এদিকে, ইউরোপের তুলনামূলক ছোট লিগগুলো, যেমন বেলজিয়াম বা স্কটল্যান্ডের ক্লাবগুলো সম্প্রচার চুক্তির ওপর অতটা নির্ভরশীল নয়৷ তারা শিগগিরই চলতি মৌসুম শেষ করে পরের মৌসুম শুরুর প্রস্তুতির কথা ভাবতে চাইছে৷

বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসছে ইউরোপীয় ফুটবল অ্যাসেসিয়েশন উয়েফার গভর্নিং বডি৷ সেখান থেকেও সুখবর আসতে পারে ক্লাবগুলোর জন্য৷

জেডএ/এসিবি (ডিপিএ)

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য

এই বিষয়ে আরো তথ্য

স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

এলোমেলো, ছন্দহীন আর্জেন্টিনাকে ম্যাচে ফেরাতে এমনই এক জাদুকরী মুহূর্ত দরকার ছিল

ম্যারাডোনাকে ছোঁয়ার দিনে আর্জেন্টিনাকে বাঁচিয়ে রাখলেন মেসি

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান