‘‘আমার খদ্দেরকে স্পর্শ করবে না′′ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 06.12.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘‘আমার খদ্দেরকে স্পর্শ করবে না''

ফ্রান্সের পার্লামেন্টে বুধবার একটি বিতর্কিত বিল পাস হয়েছে৷ এর ফলে পতিতার খদ্দেরদের কমপক্ষে ১৫শ' ইউরো জরিমানা দিতে হবে৷ নিম্নকক্ষের ভোটাভুটিতে গণিকাবৃত্তি বিরোধী বিলের খসড়ার পক্ষে ভোট পড়ে ২৬৮টি এবং বিপক্ষে ১৩৮টি৷

বিলটি এখন সেনেটে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে৷ সুইডেনে একই ধরনের আইন রয়েছে, যা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে এই আইনের খসড়া তৈরি করা হয়েছে৷ নারী অধিকার মন্ত্রী নাজাত ভ্যালু-বেলকাসেম এই আইনের প্রধান উদ্যোক্তা৷ বিলটি পাস হওয়ার পর এটিকে ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি৷ নতুন এ বিলে যৌনকর্মী বা এর পৃষ্ঠপোষকদের আইনের আওতায় না এনে খদ্দেরদের শাস্তি দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে৷

এই বিল অনুযায়ী, কেউ যদি অর্থের বিনিময়ে যৌনকর্মে লিপ্ত হন তবে তাঁকে ১ হাজার ৫শ' ইউরো জরিমানা করার বিধান রাখা হয়েছে৷ শাস্তিপ্রাপ্ত হওয়ার পর ফের একই অপরাধ করলে গুণতে হবে দ্বিগুন অর্থ৷

Symbolbild Prostitution

কেউ অর্থের বিনিময়ে যৌনকর্মে লিপ্ত হলে তাঁর ১ হাজার ৫শ' ইউরো জরিমানা হবে

সরকার বলছে এর ফলে নির্যাতনের হাত থেকে নারীরা রক্ষা পাবেন এবং পাচারকারীদের হাত থেকে রক্ষা করা যাবে তাঁদের৷ ফলে যৌনকর্মীদের সুরক্ষা নিশ্চিত হবে৷ তবে অনেক সেলিব্রেটিসহ বেশ কিছু সমালোচক বলছেন, এই বিলের ফলে যৌনকর্মীরা নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকিতে পড়বেন এবং হয়রানির শিকার হবেন৷

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে প্রায় ২০ হাজার যৌনকর্মী আছেন৷ এর মধ্যে প্রায় ৮০ ভাগই অন্য দেশ থেকে সেখানে গেছেন৷ বেশিরভাগই গেছেন ইউরোপের পূর্বাঞ্চল, আফ্রিকা, চীন এবং দক্ষিণ অ্যামেরিকা থেকে৷

বিলের উপর পার্লামেন্টে যখন ভোটাভুটি চলছিল তখন ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বাইরে অন্তত ২০০ যৌনকর্মী বিক্ষোভ করছিলেন৷ তাঁদের স্লোগান ছিল, ‘‘আমার খদ্দেরকে স্পর্শ করবে না৷''

এপিবি/জেডএইচ (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন