অভিবাসন নিয়ে রবিবার ইইউ-র ‘মিনি′ বৈঠক | বিশ্ব | DW | 20.06.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ইউরোপ

অভিবাসন নিয়ে রবিবার ইইউ-র ‘মিনি' বৈঠক

শরণার্থী সংকটের সমাধান খুঁজতে আগামী বৃহস্পতিবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ নেতারা বৈঠকে বসবেন৷ তার আগে রবিবার নিজেদের মধ্যে কথা বলবেন কয়েকজন নেতা৷

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জঁ ক্লোদ ইয়ুংকার বুধবার জানান, ইউরোপে অভিবাসন ও আশ্রয় নিয়ে আলোচনার জন্য তিনি রবিবার ব্রাসেলসে ‘অনানুষ্ঠানিক' এক বৈঠক আহ্বান করেছেন৷ ‘‘ইইউ শীর্ষ সম্মেলনের আগে শরণার্থী সংকটের একটি ইউরোপীয় সমাধানসূত্র পাওয়ার লক্ষ্যে কয়েকজন রাষ্ট্রপ্রধান নিজেদের মধ্যে আলোচনা করবেন,'' বলে এক টুইট বার্তায় জানান ইয়ুংকার৷

জার্মানি, ফ্রান্স, ইটালি, স্পেন, গ্রিস, অস্ট্রিয়া ও বুলগেরিয়ার নেতৃবৃন্দ এতে অংশ নেবেন বলে এএফপি জানিয়েছে৷ এদিকে, মাল্টার প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনিও ইয়ুংকারের আমন্ত্রণ পেয়েছেন৷

বৈঠকে ‘ডাবলিন রেগুলেশন' সংস্কার নিয়ে আলোচনা হতে পারে৷ এই নীতি অনুযায়ী, শরণার্থীরা প্রথমে যে দেশে নিবন্ধিত হবেন, সেই দেশেই তাদের আশ্রয়ের আবেদন করতে হয়৷ এই নিয়মের কারণে ইটালি ও গ্রিসের সমস্যা হচ্ছিলো৷ কারণ, বেশিরভাগ শরণার্থীই সাধারণত ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে এই দেশ দুটিতে আশ্রয় নিয়ে থাকেন৷

এছাড়া রবিবারের বৈঠকে ইইউর সীমান্তরক্ষাকারী বাহিনীকে শক্তিশালী করা, ইইউর বাইরে আশ্রয় প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্র খোলা এবংইইউর বিভিন্ন দেশে শরণার্থীদের বণ্টন করা ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে৷

উল্লেখ্য, ২০১৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রায় ১৫ লক্ষ শরণার্থী প্রবেশ করেছে৷ তাঁদের কারণে ইইউ'র আশ্রয় ব্যবস্থা সংস্কারের প্রয়োজন দেখা দিয়েছে৷

শরণার্থী সংকটকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন দেশে ডানপন্থি দলগুলো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷ জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল তাঁর মানবিক শরণার্থী নীতির কারণে সম্প্রতি রাজনৈতিক সংকটে পড়েছেন৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন