1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘হাসনাত-তাহমিদকে নিয়ে সন্দেহ হয় বডি ল্যাংগুয়েজের কারণে'

গুলশান হামলায় নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির শিক্ষক হাসনাত করিমকে গ্রেপ্তার দেখানো হলেও তিনি আদৌ জড়িত কিনা, তা নিয়ে নিশ্চিত নয় পুলিশ৷ আর ক্যানাডার ছাত্র তাহমিদ হাসিব খানকে প্রয়োজনে আবারো জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে খবর৷

হাসনাত ও তাহমিদ দু'জনই গুলশান হামলার ঘটনা থেকে বেঁচে যান৷ তারা হলি আর্টিজানে পুলিশের অভিযানের আগেই, অর্থাৎ ২ জুলাই সকালে জঙ্গিদের হাত থেকে মুক্তি পান৷ এরপর এক মাস দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৩ অগাস্ট রাতে তাদের ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার করা হয়৷ পরেরদিন দু'জনকেই আট দিন করে রিমান্ডে নেয় পুলিশের তদন্তকারী সংস্থা কাউন্টার টেররিজম ইউনিট

আটদিনের রিমান্ড শেষ হলে হাসনাত করিমকে গুলশান হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আবারো দ্বিতীয় দফায় আটদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়৷ তারপর সেই রিমান্ড শেষে সোমবার আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়৷ এর দু'দিন আগেই তাহমিদ হাসিব খানকে ছ'দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল৷ তবে এখনও পর্যন্ত তাকে গুলশান হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি৷

অডিও শুনুন 03:32

‘‘হাসনাতের বডি ল্যাংগুয়েজ আরো নিবিড়ভাবে পর্যালোচনা করা হচ্ছে’’

এই দু'জনের কাছ থেকে গুলশান হামলার ব্যাপারে কী ধরনের তথ্য পাওয়া গেছে তা অবশ্য এখনো সংবাদমাধ্যমকে জানাননি তদন্তকারীরা৷ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘হাসনাত করিমের কাছ থেকে আমরা গুলশান হামলার ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি৷ এখন সেগুলো যাচাই-বাছাই করা হবে৷ তিনি গুলশান হামলার সন্দেহভাজন আসামি৷ প্রয়োজনে তাকে আবারো রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে৷''

গুলশান হামলার সঙ্গে হাসনাত করিমের কী ধরনের সংশ্লিষ্টতা পাওয় গেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে৷ তিনি সন্দেহভাজন৷ কিন্তু তিনি জড়িত কিনা, তা এখনো নিশ্চিত নয়৷ তদন্ত শেষেই তা বলা যাবে৷''

তাহমিদ সম্পর্কে জানতে চাইলে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘তাহমিদকে আমরা গুলশান হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার দেখাইনি৷ তাকে ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ অর্থাৎ গুলশান হামলায় তার জড়িত থাকার প্রমাণ আমরা এখনও পাইনি৷ তবে প্রয়োজন হলে তাকে আমরা আবারো জিজ্ঞাসাবাদ করব৷''

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের একজন শিল্পপতির ছেলে তাহমিদ ক্যানাডার টরোন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র৷ তিনি গুলশান হামলার দিন সকালেই বাংলাদেশে আসেন এবং সেই রাতে দুই বান্ধবীকে নিয়ে হলি আর্টিজানে যান৷ তার ঐ দুই বন্ধবীও অভিযানের আগে মুক্তি পেয়েছিলেন৷

হাসনাত করিমের দাবি, তিনি হামলার দিন তার মেয়ের জন্মদিন পালন করতে সপরিবারে হলি আর্টিজানে গিয়েছিলেন৷ তবে অভিযানের আগেই পরিবারে চার সদস্যসহ মুক্তি পান তিনি৷

মাসুদুর রহমান বলেন, ‘‘এদের নিয়ে সন্দেহ সৃষ্টি হয় বডি ল্যাংগুয়েজের কারণে৷ তাই এখন হাসনাতের বডি ল্যাংগুয়েজ আরো নিবিড়ভাবে পর্যালোচনা-বিশ্লেষণ করা হচ্ছে৷ মিলিয়ে দেখা হচ্ছে প্রাপ্ত তথ্য৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও