1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইহুদি গোষ্ঠী ফেসবুকের বিরুদ্ধে হেট স্পিচ মামলা করেছে

ফেসবুকের হেট স্পিচ অপসারণ করার ‘‘আইনগত ও নৈতিক দায়িত্ব'' আছে, বলে নিউ ইয়র্ক স্টেটের আদালতে যে মামলা দায়ের করা হয়েছে, তা সমর্থন করে একটি অনলাইন পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন বিশ হাজার ইসরায়েলি৷

যে সাইটটি নিয়ে মামলা, ফিলিস্তিনিরা সেই সাইটে তাদের সহিংস আক্রোশ প্রকাশ করে আসছে সাম্প্রতিক গোলযোগ শুরু হওয়ার আগে থেকে৷ ‘শুরাত হা-দিন' সংগঠন সোমবার মামলা দায়ের করে এই দাবি করে যে, ফেসবুক-কে এক হাজার পাতার বেশি আক্রোশযুক্ত বিষয় অপসারণ করতে হবে এবং ভবিষ্যতে এই ধরনের হেট স্পিচের উপর নজর রাখতে হবে৷

‘জেরুসালেম পোস্ট' পত্রিকার বিবরণ অনুযায়ী বাদীপক্ষের মূল প্রতিনিধি নিজেই সম্প্রতি একটি আক্রমণের শিকার হয়েছেন৷ জেরুসালেমের একটি বাসে তাঁকে গুলি করা হয় ও ছুরি মারা হয়৷ আহতের অবস্থা এখনও উদ্বেগজনক, বলে জানিয়েছে জেরুসালেম পোস্ট৷

মানুষজন কি ধরনের কফি খায়, তা যদি ফেসবুকের জানা থাকে; ফেসবুক যদি ব্যবহারকারীদের ‘হবি' অনুযায়ী বিজ্ঞাপন দিতে পারে, তাহলে ফেসবুক ‘‘এই সব হুমকিরও খেয়াল রাখতে পারে, এবং যে সব পোস্টে সন্ত্রাসী আক্রমণের প্রশংসা করা হয়েছে বা উৎসাহ দেওয়া হয়েছে, সেগুলিকে অপসারণ করতে পারে'' - এএফপি সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন শুরাত হা-দিন সংগঠনের পরিচালক নিৎসানা দর্শন-লাইটনার৷

গোটা অক্টোবর মাস ধরে ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনি এলাকাগুলিতে হিংসার তাণ্ডব চলেছে৷ অসন্তুষ্ট ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলিদের উপর পর্যায়ক্রমে আক্রমণ চালিয়েছে, বিশেষ করে ছুরি হাতে আক্রমণ৷ দশ জন ইসরায়েলি ও পঞ্চাশজনের বেশি ফিলিস্তিনি এই হিংসার স্রোতে প্রাণ হারিয়েছেন৷

নিউ ইয়র্কের আদালতে মামলাকারীদের বক্তব্য, আক্রমণকারীদের মধ্যে অনেকেই আক্রমণের প্রেরণা পেয়েছে, ‘‘তারা ফেসবুকে যা পড়েছে, বক্তৃতাবাগীশ নেতারা তাদের অনুগামীদের যে ‘ইহুদি হত্যার' ডাক দিয়েছেন'', সেই ডাক শুনে৷ ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এই পরিস্থিতিকে বলেছেন, ‘‘ওসামা বিন লাদেনের সঙ্গে মার্ক সাকারবার্গের মোলাকাত''৷

প্রতিক্রিয়া হিসেবে ফেসবুক এএফপি-কে বলেছে, ‘‘এই মামলার কোনো উৎকর্ষ নেই এবং আমরা জোরালোভাবে স্বপক্ষ সমর্থন করব৷'' অপরদিকে তাদের নিজেদের সাইটে ফেসবুক সহিংস ও ঘৃণাযুক্ত বিষয়ের নিন্দা করেছে এবং ব্যবহারকারীদের সে ধরনের পোস্ট রিপোর্ট করার আহ্বান জানিয়েছে৷

ফিলিস্তিনি তরফে বলা হয়েছে যে, প্রায় পঞ্চাশ বছর ধরে ইসরায়েলের সামরিক জবরদখল থেকে ফিলিস্তিনিদের মধ্যে যে ক্ষোভ ও হতাশার সঞ্চার হয়েছে, ফেসবুকের উপর দোষারোপ করে সেই ক্ষোভকে ঢাকা দেবার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন