৭০ বছরে অনেকটা বিচ্যুত আওয়ামী লীগ | বিশ্ব | DW | 23.06.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

৭০ বছরে অনেকটা বিচ্যুত আওয়ামী লীগ

৭০ পেরিয়ে ৭১ বছরে পা দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ৷ এ উপলক্ষে রাজধানী সেজেছে বর্ণিল সাজে৷ তবে শুরুতে যে আদর্শ ছিল দলটির, তা থেকে অনেকটাই তারা বিচ্যুত হয়েছে বলে করেন রাজনীতি বিশ্লেষকরা৷

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শামসুল হকের নেতৃত্বে ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়৷ জন্মলগ্নে এই দলের নাম ছিল ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ'৷ ১৯৫৫ সালের কাউন্সিলে ‘মুসলিম' শব্দটি বাদ দিয়ে ধর্মনিরপেক্ষ নীতি গ্রহণের মাধ্যমে অসাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক দল হিসেবে ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী লীগ' নামকরণ করা হয়৷ স্বাধীনতার পর নামকরণ হয় ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ'৷ বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের পর ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফিরে দলের হাল ধরেন বর্তমান সভাপতি শেখ হাসিনা৷ এর পর থেকে গেল ৩৮ বছর ধরে দলের সভাপতির দায়িত্বে আছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা, সময়ের হিসেবে যা আওয়ামী লীগের ইতিহাসে অর্ধেকের বেশি৷

অডিও শুনুন 05:26

বঙ্গবন্ধুর আদর্শের জায়গায় তারা থাকল না: সৈয়দ আনোয়ার হোসেন

রাজনীতি বিশ্লেষক ও পর্যবেক্ষক অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন দলটির ইতিহাস বিশ্লেষণ করলেন এভাবে, ‘‘মুসলিম লীগ থেকে যখন এই দলটি আওয়ামী লীগ হয় তখন গণমানুষের দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে৷ স্বাধীনতা যুদ্ধে এই দলের অবদান অনস্বীকার্য৷ বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পর অনেকটাই দিক হারিয়েছিল দলটি৷ ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনা দেশে ফিরে দলের হাল ধরার পর ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করে৷'' ডয়চে ভেলেকে টেলিফোনে বলছিলেন তিনি৷

১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর ২০০১-২০০৭ পর্যন্ত একটা বিরতি দিয়ে আবার সরকার গঠন করে দলটি৷ এরপর থেকে টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আছে তারা৷

‘‘সম্প্রতি দলটি ধর্ম নির্ভর হয়ে পড়ছে৷ আমি বলব তারা আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়েছে,'' সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন৷ ‘‘উদাহরণ দিয়ে বলি- হেফাজতে ইসলাম৷ যে দলটি মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী, নারী বিদ্বেষী তাদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের সখ্য হতে পারে না৷ আবার ৭২ এর সংবিধান ফিরিয়ে আনতে গিয়ে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম রাখা হয়েছে৷ তাহলে তো বঙ্গবন্ধুর সেই আদর্শের জায়গায় তারা থাকল না৷ এখন বলা হচ্ছে এগুলো ভোটের রাজনীতি৷ কিন্তু আমি এটাকে বলব আদর্শ বিচ্যুতি৷''

অডিও শুনুন 05:43

অনেকটাই ব্যবসায়ী নির্ভর হয়ে পড়েছে: সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম

মোটা দাগে তিনটি বিচ্যুতি ধরা পড়েছে রাজনীতি বিশ্লেষক অধ্যাপক মঞ্জুরুল ইসলামের চোখে৷

‘‘প্রথমত, তৃণমূল রাজনীতি নির্ভর দলটি এখন অনেকটাই ব্যবসায়িক নির্ভর হয়ে পড়েছে, যার প্রভাব পড়েছে বাজেটেও,'' ডয়চে ভেলেকে বলেন তিনি৷  ‘‘যেমন ধরেন, ঋণ খেলাপিদের সুবিধা দেয়া হচ্ছে৷ কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে৷ তারপরও সঞ্চয়পত্রের উপর উৎসে ৫ শতাংশ কর বাড়ানো হয়েছে৷ বাজেট প্রণয়নের সময় হয়ত অর্থমন্ত্রীর খেয়ালই ছিল না, এটা কেনেন সাধারণ মানুষ৷ যেটা মতিয়া চৌধুরীর চোখে ধরা পড়েছে৷ কারণ তিনি তৃণমূল থেকে উঠে আসা রাজনীতিক৷ আরেকটা হল- আওয়ামী লীগে যুবলীগ-ছাত্রলীগের প্রভাব৷ দলের শুরুতেও সহযোগী সংগঠন হিসেবে যুবলীগ ছাত্রলীগ ছিল৷ কিন্তু তখন তাদের এত প্রভাব দলের উপর ছিল না৷ তাদের চাঁদাবাজি-টেন্ডারবাজিতে ম্লান হচ্ছে আওয়ামী লীগের কর্মকাণ্ড৷ আর তৃতীয়টা হল আওয়ামী লীগের কাউন্সিল নিয়মিত না৷ এখানে গণতান্ত্রিক চর্চার অভাব আমার চোখে পড়ছে৷ একটু চেষ্টা করলেই এখান থেকে বেড়িয়ে এসে আদর্শিক গণতান্ত্রিক দল হতে পারে আওয়ামী লীগ৷''

রবিবার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নেতারা৷ পরে এক সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় তাঁর অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করে বলেছেন, ‘‘আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাই হয়েছিল নিপীড়ন রোধ করতে, শোষণ-বঞ্চনা-ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়তে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন