৩২ লাখ মানুষ ক্ষতির শিকার, ঢাকায়ও বন্যার আশঙ্কা | বিশ্ব | DW | 16.08.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

৩২ লাখ মানুষ ক্ষতির শিকার, ঢাকায়ও বন্যার আশঙ্কা

বাংলাদেশের ২১টি জেলার ৯৬টি উপজেলা এখন বন্যা প্লাবিত৷ ক্ষতির মুখে পড়েছেন ৩২ লাখ মানুষ৷ এই বন্যা উত্তরাঞ্চল ছাড়িয়ে মধ্যাঞ্চল হয়ে ঢাকা শহরকেও প্লাবিত করতে পারে৷ তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, ঢাকার পরিস্থিতি তত খারাপ নাও হতে পারে৷

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা সতর্কীকরণ ও পূর্বাভাস কেন্দ্র বুধবার জানায়, দেশের উত্তরাঞ্চলের ব্রহ্মপুত্র-যমুনা অববাহিকার উজানের অংশ ছাড়া বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হচ্ছে৷ তবে মেঘনা অববাহিকার ভারতীয় অংশে পানি কমা অব্যাহত আছে৷ ফলে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে মেঘনা অববাহিকার অধিকাংশ নদীর পানিও কমছে৷

এদিকে, বাংলাদেশের উজানের তিনটি অববাহিকার মধ্যে গঙ্গায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলেও ব্রহ্মপুত্রের উজানের তিনটি পয়েন্ট গোহাটি, পান্ডু ও গোয়ালপাড়ায় পানি হ্রাস পাচ্ছে৷ ধুবরী পয়েন্টে পানি স্থিতিশীল রয়েছে৷ অপরদিকে মেঘনা অববাহিকায়ও পানি কমছে৷ গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধি আগামী ৭২ ঘণ্টা অব্যাহত থাকবে৷ এই অববাহিকার উজানে নেপালে ও বিহারে বন্যা পরিস্থিতি থাকার ফলে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে৷

কেন্দ্রের পূর্বাভাস বলছে, দেশের উত্তর অঞ্চলের বর্তমান বন্যা পরিস্থিতি ব্রহ্মপুত্র নদীর উজানের অংশে কুড়িগ্রাম ও রংপুরে উন্নতি হতে পারে৷ তবে জামালপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জে পরিস্থিতি আরো খারাপ হবে৷

অডিও শুনুন 02:30
এখন লাইভ
02:30 মিনিট

‘২১ তারিখে অমাবস্যার কারণে মোহনা গুলোতে পানি অনেক স্ফীত হবে’

এই বন্যা পরিস্থিতি বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল ও দক্ষিণ-মধ্যাঞ্চলে বিস্তৃত হওয়ার আশংকা রয়েছে৷ মধ্যাঞ্চলের ঢাকার চতুর্দিকের পাঁচটি নদীর পানি বিপদসীমার ৩৮ সেমি হতে ১৩৬ সেমি নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে৷

ঢাকা ও আশপাশ

উত্তরের পানি মেঘনা হয়ে বঙ্গোপসাগরে যাবে বলে মধ্যাঞ্চলে বন্যার আশঙ্কার কথা আগেই জানিয়েছিল বন্যা সতর্কীকরণ কেন্দ্র৷ সেক্ষেত্রে ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী বন্যার ঝুঁকিতে রয়েছে৷ ২৪ ঘণ্টায় বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু, শীতলক্ষ্যা, টঙ্গী খাল, ধলেশ্বরী ও কালীগঙ্গার পানি সর্বোচ্চ ২৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত বেড়েছে৷

তবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিশেষজ্ঞ গওহর নাইম ওয়ারা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ঢাকায় বন্যার পিছনে কাজ করে বালু নদী৷ আর বালু নদীর পানি আসে পুরনো ব্রহ্মপুত্র থেকে৷ পুরনো ব্রহ্মপুত্র নদীতে পানি নেই৷ কারণ ময়মনসিংহে এর মুখ বন্ধ হয়ে গেছে৷ এখন যে পানি আমরা দেখছি তা স্থানীয় বৃষ্টির পানি৷ ফলে ঢাকার জন্য এখনো বড় কোনো আশঙ্কা দেখতে পাচ্ছিনা৷'' তিনি বলেন, ‘‘১৯ আগস্ট পর্যন্ত পানি বাড়বে বলে মনে হয়৷ ২১ তারিখে অমাবস্যার কারণে মোহনা গুলোতে পানি অনেক স্ফীত হবে৷ মোহনায় পানি থাকলে তা নামতে সময় লাগে, তাই পানি কয়েকদিন দাঁড়িয়ে যেতে পারে৷ মানিকগঞ্জ থেকে শরীয়তপুর পর্যন্ত বেশি সময় ধরে পানি স্থবির হয়ে থাকবে৷ এর মধ্যে বৃষ্টিপাত হলে সমস্যা হতে পারে৷''

তিনি আরো বলেন বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বৃষ্টিপাত বন্যার কারণের মাত্র সাতভাগ৷ কিন্তু এবার চীন, ভারত ও নেপালে প্রচুর বৃষ্টিপাত হচ্ছে৷ সেখানেও বন্যা হচ্ছে৷ সেই পানি বাংলাদেশেও আসছে৷ ফলে এখন উত্তরাঞ্চল বন্যার কবলে৷ আর এই পানি প্রবাহিত হয়ে সাগরে যাবে৷ ফলে মধ্যাঞ্চলসহ আরো অনেক এলাকা প্লাবিত হতে পারে৷

বুধবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব গোলাম মোস্তফা সাংবাদিকদের জানান, ‘‘এই মুহূর্তে বন্যায় দেশের ২১টি জেলার ৯৬টি উপজেলা প্লাবিত৷ এর ফলে এসব উপজেলার ৩২ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷ আর কমবেশি নষ্ট হয়েছে ১ লাখ ৭২ হাজার ২৭০ হেক্টর জমির ফসল৷''

তিনি জানান, ‘‘পরিস্থিতি মোকাবিলায় মন্ত্রণালয়ে কন্ট্রোল রুম ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখা হয়েছে৷ বন্যার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি জেলায় মন্ত্রণালয় থেকে যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার একজন শীর্ষ কর্মকর্তাকে পাঠানো হয়েছে৷ তিনি জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ কার্যক্রম সমন্বয় করছেন৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন