২২ বছর আগের যে ‘জলসা′ এখন ভাইরাল | বিশ্ব | DW | 04.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

২২ বছর আগের যে ‘জলসা' এখন ভাইরাল

মেয়র আনিসুল হক চলে গেছেন না ফেরার দেশে৷ কিন্তু রেখে গেছেন কিছু অনবদ্য কাজ৷ বাংলাদেশ টেলিভিশনে আশি থেকে নব্বইয়ের দশকে তাঁর উপস্থাপনায় বেশ কিছু ভিন্নধর্মী অনুষ্ঠান আজও মনে রেখেছে মানুষ৷ তেমনই একটি অনুষ্ঠান ‘জলসা'৷

আনিসুল হকের মৃত্যুর মাত্র কয়েক মাস আগে বিটিভি-র এই অনুষ্ঠানটি অনেকেই ফেসবুকে শেয়ার করেছেন৷ মৃত্যুর পর নতুন করে অনেকেই শেয়ার করছেন এটি৷

১৯৯৫ সালের ২৪শে সেপ্টেম্বর এটি বিটিভিতে সম্প্রচার হয়৷ চলতি বছরের মে মাসে ইউটিউবে পোস্ট করা হয়েছে ভিডিওটি৷ এ পর্যন্ত ২ লাখেরও বেশি বার দেখা হয়েছে৷ ২২ বছরের পুরোনো একটা ভিডিও কেন এতটা জনপ্রিয় জানতে হলে আপনাকে পুরো অনুষ্ঠানটি দেখতে হবে৷ ইউটিউবে ভিডিওর নীচে চারশ'টিরও বেশি মন্তব্যে সবাই জানিয়েছেন নিজেদের ভালো লাগার কথা, অনেকের শৈশবের কথা৷

তার মধ্যে কয়েকটি এখানে তুলে ধরা হলো:

মাজহারুল ইসলাম লিখেছেন, ‘‘কি প্রাণবন্ত অনুষ্ঠান তখন একটি মাত্র চ্যানেল বিটিভিতে প্রচারিত হত এখন ভাবা যায়? এই পোস্টটি আমাকে ১৯৮০ সালে ফিরিয়ে নিয়ে গেছে৷ নাটক, সিনেমা, ছায়াছন্দ, গানের অনুষ্ঠান, টারজান, টম অ্যান্ড জেরি, কোনটা রেখে কোনটার কথা বলবো৷ এক মঙ্গলবারে এইসব দিন-রাত্রি তো পরের মঙ্গলবারে ঢাকায় থাকি, প্রতি মাসের শেষ বৃহস্পতিবারে সিনেমা কত কিছু মনে পড়ছে৷ আমরা কি আমাদের সংস্কৃতিকে ধরে রাখতে পেরেছি? ভাবা দরকার৷ সরকারের উচিত প্রত্যেক টিভি চ্যানেলকে বিটিভিতে প্রচারিত আগের অনুষ্ঠানগুলোকে পুনরায় প্রচারে বাধ্য করা৷''

শাহজাহান চৌধুরী লিখেছেন, ‘‘অসাধারণ একটি অনুষ্ঠান৷ ২২ বছর আগে সম্প্রচারের দিনই অনুষ্ঠানটি আমার দেখার সুযোগ হয়েছিল৷ আশি এবং নব্বই দশক ছিল ব্যান্ড সংগীতের গোল্ডেন টাইম৷ সে সময়কার রিলিজ হওয়া প্রতিটি ব্যান্ড সংগীত ছিল সকল উঠতি তরুণ-তরুণী এবং যুবক-যুবতীদের মুখে মুখে৷ আনিসুল হকের উপস্থাপনায় ‘এখনই' ঈদে ‘আনন্দ মেলা' দেখেছিলাম৷ এত বছর পরে ইউটিউবে অনুষ্ঠানটি আবারো দেখে, অনেক গুলো বিষয় মিলাতে পারি না! অনুষ্ঠানটিতে সবার সৌজন্যবোধ, সংযমী কথা, একে অপরে প্রতি শ্রদ্ধাবোধ এবং সবার কথা বলার স্টাইল, এ সবের সাথে কি এখনকার কোন মিল আছে? আমরা আধুনিক এবং উন্নত হতে হতে, নিজেদেকেই ভুলে গেছি বলে মনে হয়! ''

নাজির ইকবাল লিখেছেন, ‘‘২২ বছর পে‌রি‌য়ে গে‌ছে! ম‌নে হয় এই তো সে‌দিন ! তখন ক্লাস নাই‌নে প‌ড়ি! রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার ক‌ণ্ঠে সোল‌সের গান, পার্থ বড়ুয়ার শচীনকর্তার গান, নকিব খা‌নের রবীন্দ্রসংগীত! আহা দিনগুলা কোথায় হারা‌লো!''

মৃন্ময় নিয়াজ লিখেছেন, ‘‘এই অনুষ্ঠানটা হচ্ছে বাংলা সংগীত ও সাংস্কৃতিক জগতের এক অসামান্য ভিডিও দলিল, দেশের সেরা সব বাঘেরা এক স্থানে, তাদের সাথে হবু বাঘের দল৷''

প্রায় ২২ বছর আগের একটা অনুষ্ঠান আবারও দেখছে লাখো মানুষ৷ এই অনুষ্ঠানের ভিন্নতা এবং উপযোগিতা যে এখনো শেষ হয়ে যায়নি ‘জলসা' যেন সেটাই মনে করিয়ে দিচ্ছে৷

এপিবি/ডিজি

অনুষ্ঠানটি প্রসঙ্গে আপনার কিছু বলার থাকলে লিখুন নীচে মন্তব্যের ঘরে৷