২২ ফেব্রুয়ারি থেকে আবার স্কুল | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 17.02.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে আবার স্কুল

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হবে জানান শিক্ষামন্ত্রী৷ তবে যারা টিকার দুই ডোজ টিকা নিয়েছে তারাই ক্লাসে যাবে এবং ১২ বছররের কম বয়সীরা বাসা থেকে ক্লাস করবে৷

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

তিনি জানান, যারা দুই ডোজ টিকা নেয়নি, আপাতত তারা বাসায় থেকে অনলাইনে বা টেলিভিশন দেখে ক্লাস করবে৷ ১২ বছরের কম বয়সীরা টিকা পায়নি, তাদের ক্লাসে ফিরতে আরও অপেক্ষায় থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী৷ 

করোনা সংক্রমণের হার ইতোমধ্যে ১২ শতাংশের ঘরে নেমে এসেছে৷ ১০ থেকে ১৪ দিনের মধ্যে হয়ত আরও কমে ‘সেই কাঙ্ক্ষিত মাত্রায়' নেমে আসবে, তখন প্রাথমিক বিদ্যালয়ও খুলে দেওয়া যায় বলে জানান তিনি৷ ১২ বছরের কম বয়সিদের টিকার আওতায় আনার বিষয়টিও সরকার বিবেচনা করছে বলে জানিয়েছেন দীপু মনি৷

মহামারির কারণে দেড় বছর বন্ধ থাকার পর গত বছরের সেপ্টেম্বরে সব স্কুল-কলেজ খুলে দিয়েছিল সরকার৷ পরে ধাপে ধাপে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও খুলেছিল৷

কিন্তু করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের দাপটে এ বছরের শুরু থেকে সংক্রমণ ফের বাড়তে শুরু করলে গত ২১ জানুয়ারি ফের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা আসে৷ পরে ছুটি বাড়তে বাড়তে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত গিয়ে ঠেকে৷

বুধবার রাতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে জাতীয় কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি মত দেয়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবার কমে আসায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখন খুলে দেওয়া যায়৷

ওমিক্রনের দাপটে জানুয়ারির শেষ দিকে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৬ হাজারও ছাড়িয়েছিল, শনাক্তের হার পৌঁছেছিল ৩৩ শতাংশের রেকর্ড উচ্চতায়৷ বর্তমানে শনাক্ত রোগী ৪ হাজারের নিচে , শনাক্তের হার নেমে এসেছে ১৩ শতাংশের নিচে৷

এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বুধবার মহামারি মোকাবেলার বিশেষজ্ঞ কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে শিক্ষার নীতি-নির্ধারকরদের সাথে যোগ দেন মন্ত্রী দীপু মনি৷

বৈঠক শেষে কোভিড পরামর্শক কমিটির সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন,  ‘‘১২ বছর বা তার বেশি বয়সি বাচ্চারা যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছে, তাদের এখন স্কুলে যেতে কোনো বাধা নেই৷ ১২ বছরের কম বয়সিরা এখন স্কুলে যেতে পারবে না, কারণ তারা দুই ডোজ টিকা নেয়নি৷’’

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম) 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়