২১ দিনের লকডাউনে ভারত | বিশ্ব | DW | 24.03.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

২১ দিনের লকডাউনে ভারত

আগেই ২০টি রাজ্য এবং সাতটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ৩১ মার্চ পর্যন্ত লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকারগুলো৷ মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে গোটা দেশে লকডাউনের সিদ্ধান্তের কথা জানালেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আগামী ২১ দিন এই লকডাউন বলবৎ থাকবে৷ বুধবার রাত ১২টা এক মিনিট থেকে এটি কার্যকর হবে৷ প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারির মতো ছড়িয়ে পড়েছে৷ দেশেও প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে৷ এই অবস্থায় লকডাউন না করে সরকারের হাতে আর কোনো উপায় নেই৷ 

এই লকডাউন ১৪৪ ধারার মতোই, অর্থাৎ বাড়ির বাইরে কোনোভাবেই বের হওয়া যাবে না বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷

তবে জরুরি সেবাকর্মীদের জন্য এই লকডাউন থেকে ছাড় রয়েছে৷ চিকিৎসক, মুদির দোকান, দুগ্ধ প্রস্তুতকারক সংস্থা, দমকল, পুলিশবাহিনীসহ ছাড় পাবেন গণমাধ্যমকর্মীরাও৷

মোদী জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দুপুরেই অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ আর্থিক বিষয়ে কিছু ছাড় ঘোষণা করেছেন৷ অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, ৩০ জুন পর্যন্ত আয়কর দেওয়ার সময় নির্ধারিত করা হয়েছে৷ অন্য বছর এপ্রিলের মধ্যেই এ আয়কর দেয়ার বাধ্যবাধকতা থাকে৷

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন৷ তবে তার উদ্বেগ, এপ্রিল মাস থেকে ধান তোলার মৌসুম শুরু হবে৷ এমন সময়ে গরীব মানুষদের জন্য ভারত সরকার কী পদক্ষেপ নিচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী তা জানিয়ে দিলে সাধারণ মানুষ আশ্বস্ত হতেন বলেও মনে করেন তিনি৷

এখন পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসে প্রায় পাঁচশ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন, মৃত্যু হয়েছে অন্তত আট জনের৷

এসজি/এআই

বিজ্ঞাপন