২০৫০ সালে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামাতে একমত ইইউ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 13.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

২০৫০ সালে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামাতে একমত ইইউ

কয়লা-নির্ভরশীল দেশ পোল্যান্ডকে ছাড়াই ইউরোপে ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনার পরিকল্পনায় একমত হয়েছেন ইইউ নেতারা৷ নিজেদের সিদ্ধান্ত জানাতে পোল্যান্ডকে আগামী সম্মেলন পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে৷ 

ব্রাসেলসে ম্যারাথন আলোচনার পর শুক্রবার ইইউ নেতারা ওই পরিকল্পনায় মতৈক্যে পৌঁছাতে সক্ষম হন৷ 

ইইউ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট শার্লস মিশেল বলেন, ‘‘জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে আমরা একটি চুক্তিতে উপনীত হয়েছি, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ৷ এ বিষয়ে ইউরোপের দৃঢ় সংকল্প বোঝাতে এ চুক্তি জরুরি ছিল৷''

বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি রোধে ২০১৫ সালে প্যারিসে স্বাক্ষরিত জলবায়ু চুক্তির অন্যতম লক্ষ্যগুলোর একটি ২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনা৷ ইইউ নেতারা ইউরোপকে এই লক্ষ্যপূরণ করা প্রথম মহাদেশ হিসেবে দেখতে চায়

প্যারিস চুক্তিতে বিশ্বনেতারা বৈশ্বিক গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি প্রাক-শিল্পায়ন যুগের পর্যায়ের ওপরে সর্বোচ্চ দুই ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখতে একমত হয়েছিলেন।

ওই লক্ষ্যমাত্রা পূরণের জন্য  ইইউর দেশগুলোকে অবশ্যই কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনতে হবে৷ এজন্য তাদের জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বন্ধ করা ছাড়াও আরো কোন কোন উৎস থেকে কার্বন নিঃসরণ হয় তা খুঁজে বের করে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে৷

পোল্যান্ডের জন্য এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন অত্যন্ত কঠিন৷ কারণ দেশটির মোট জ্বালানির ৮০ শতংশের উৎস কয়লা৷ যে কারণে তারা শুরু থেকেই এই পরিকল্পনার বিরোধিতা করে এসেছে৷

শুক্রবার এ নিয়ে কয়েক ঘণ্টা ধরে বিতর্কের পর দেশটি শেষ পর্যন্ত ওই পরিকল্পনা থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয়৷ পোল্যান্ড সরকারের যুক্তি, তাদের আরও সময় প্রয়োজন৷

পলিশ প্রধানমন্ত্রী  মাতেউস মোহাভিয়স্কি বলেন, ‘‘ইউরোপের বিভিন্ন অংশের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই৷ কিন্তু সেখানে একটি দেশের এখনো আরো কিছুটা সময় প্রয়োজন৷''

ইইউ নেতারাও পোলান্ডকে আরও কিছুটা সময় দিতে চান৷ জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল সাংবাদিকদের বলেন, পোল্যান্ডের হাতে ২০২০ সালের জুন পরবর্তী সম্মেলন পর্যন্ত সময় আছে৷ ওই সময়ের মধ্যে তারা লক্ষ্যপূরণের বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিতে পারবে৷

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকেও পোল্যান্ডকে দলে টানতে ইইউ নেতারা কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন৷

তবে শুধু পোল্যান্ডই নয় চেক রিপাবলিক থেকেও ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনার বিষয়ে  আপত্তি জানানো হয়েছিল৷ পরে যখন বলা হয়, দেশগুলো কার্বন নিঃসরণ কমাতে জীবাশ্ম জ্বালানির পরিবর্তে পরমাণু শক্তি ব্যবহার করতে পারবে, তখন চেক সরকার আপত্তি তুলে নেয়৷

বিজ্ঞানীরা অবশ্য প্যারিস চুক্তি অনুযায়ী জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বৈশ্বিক গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি প্রাক-শিল্পায়ন যুগের পর্যায়ের ওপরে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখতে হলে জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার নাটকীয়ভাবে হ্রাস করতে হবে বলে সতর্ক করেছেন৷

২০১৮ সালে প্রকাশিত ইইউর এক প্রতিবেদন অনুযায়ী গত দুই দশকে ইইউভূক্ত দেশগুলোতে কার্বন নিঃসরণ উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমেছে৷ তারপরও প্রতিবছর তারা ৯ দশমিক ৬ শতাংশ হারে কার্বন নিঃসরণ করে৷

এসএনএল/কেএম (এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন