‘২০১৭ সালের ভুয়া খবর পুরস্কার’ ঘোষণা করলেন ট্রাম্প | বিশ্ব | DW | 19.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

‘২০১৭ সালের ভুয়া খবর পুরস্কার’ ঘোষণা করলেন ট্রাম্প

বুধবার দশটি সংবাদমাধ্যমের একটি তালিকা রিপাবলিকান পার্টির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ একইসঙ্গে এ খবর টুইটারে টুইটও করে দেন৷

মিডিয়ার ওপর প্রায়ই একহাত নেয়া ট্রাম্পের এই দশটি খবরের তালিকায় সিএনএন, দ্য নিউইয়র্ক টাইমস ও দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের খবর যে থাকবে, তা জানাই ছিল৷ সেগুলো তো ছিলই, সঙ্গে ছিল নিউজউইক, টাইম ও এবিসি নিউজের খবরও৷

ট্রাম্পের কাছ থেকে এমন একটি ঘোষণা আসতে পারে, তা অনেকটাই টের পাওয়া যাচ্ছিল৷

ট্রাম্পের এই আচরণকে অনেকেই ‘বেহুদা’ বলে মন্তব্য করেছেন৷ তাঁর পার্টির লোকজনই এর সমালোচনা করে বেড়াচ্ছেন৷

তালিকা ঘোষণার আগেই তাঁর পার্টির সেনেটর অ্যারিজোনার আইনপ্রণেতা জেফ ব্লেক বলেছিলেন যে, ট্রাম্প মিডিয়ার প্রতি ‘স্তালিনবাদী’ আচরণ করছেন৷ প্রেসিডেন্ট প্রায়ই সত্য স্বীকার করেন না এবং মূল ধারার গণমাধ্যম ‘জনগণের বিরুদ্ধে’ কাজ করছে বলে এক ধরনের প্রপাগাণ্ডা চালান৷

‘‘মি. প্রেসিডেন্ট, আমাদের গণতন্ত্রের এমনই অবস্থা যে, আমাদের নিজেদের প্রেসিডেন্ট এমন সব শব্দ ব্যবহার করেন, যেসবের মাধ্যমে জোসেফ স্তালিন তাঁর শত্রুদের বর্ণনা করতেন,’’ বলছিলেন এই সেনেটর৷

‘‘যখনই কোনো গণমাধ্যমের খবর কোনো একজনের বিরুদ্ধে যায়, তখনই তিনি সেই খবরকে ভুয়া খবর বলে প্রচারণা চালান এবং তিনি (ট্রাম্প) কাজটি বারবার করেন, তখন আসলে সংবাদমাধ্যম নয়, সন্দেহের তির যায় সেই ব্যক্তির দিকেই৷’’

তালিকা নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘বিশ্বাসই হয় না, একজন প্রেসিডেন্ট এমন একটি কাজে জড়িত হতে পারেন৷’’

রিপাবলিকান মূল ধারার রাজনীতিকরা যদিও এখনো ফ্লেকের সুরে সুর মেলাননি, তবে বর্ষীয়ান নেতা ম্যাককেইন ওয়াশিংটন পোস্টে এক মতামতে লেখেন, ‘‘মি. প্রেসিডেন্ট, প্রেসকে আক্রমণ করা থামান৷’’

‘‘ট্রাম্প জানেন আর না জানেন, তাঁর এসব বক্তব্য বিশ্বনেতৃবৃন্দ দেখছেন৷ অনেকেই গণতন্ত্রের এই স্তম্ভটিকে নিশ্চুপ করে দেয়ায় উদ্বুদ্ধ হয়ে উঠতে পারেন,’’ সাবধান করেন ম্যাককেইন৷

কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস বা সিপিজে'র বরাত দিয়ে ম্যাককেইন লেখেন যে, ২০১৭ সাল সাংবাদিকতার জন্য খুবই বিপজ্জনক বছর ছিল৷ এ বছর ২৬২ জনকে তাঁদের কাজের জন্য জেলে যেতে হয়েছে৷ এর মধ্যে ২১ জনকে ভুয়া খবর প্রকাশের জন্য জেলে যেতে হয়৷

জেডএ/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন