১১ শিশুর মৃত্যুতে থামলো গর্ভকালীন ভায়াগ্রার পরীক্ষা | বিশ্ব | DW | 25.07.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

১১ শিশুর মৃত্যুতে থামলো গর্ভকালীন ভায়াগ্রার পরীক্ষা

ডাচ গবেষকরা আশা করেছিলেন যৌন উত্তেজক এই ওষুধ অপরিপক্ব ভ্রুণের পরিপক্ব হওয়ায় সহায়তা করবে৷ কিন্তু হলো ঠিক তার বিপরীত৷ পরীক্ষায় অংশ নেয়া নারীরা দেখলেন, তাঁদের সন্তানদের ফুসফুসের সমস্যা দেখা দিয়েছে৷

দীর্ঘদিন গবেষণার পর ২৩ জুলাই ডাচ গবেষকরা এই গবেষণা বন্ধের ঘোষণা দেন৷ গর্ভবতী নারীদের ওপর ভায়াগ্রা প্রয়োগের ফলে ১১ শিশু ফুসফুসের সমস্যায় মারা গেছে বলেও জানান তাঁরা৷

১১টি ডাচ হাসপাতালের সাথে মিলে আমস্টারডাম ইউনিভার্সিটির ‘অ্যাকাডেমিক মেডিকেল সেন্টার' (এএমসি) এই গবেষণা চালিয়েছে৷ গর্ভের ভ্রুণ বেশি অপরিপক্ব, এমন মায়েদের ওপর প্রয়োগ করা হয় সিলডেনাফিল, সাধারণভাবে যাভায়াগ্রা নামে পরিচিত৷

ভায়াগ্রা প্রয়োগে শরীরে রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়৷ এএমসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আগের এক গবেষণায় দেখা গেছে এর ফলে ভ্রুণের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়৷

ফলে ডাক্তাররা দেখতে চেয়েছিলেন এই ড্রাগের প্রয়োগে ‘ভূমিষ্ঠ না হওয়া শিশুর বৃদ্ধি ত্বরান্বিত হয় কিনা'৷ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘‘প্রাথমিক পরীক্ষায় দেখা গেছে, শিশুর জন্মের পর এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে৷'' এএমসি আরো জানিয়েছে, সাম্প্রতিক পরীক্ষায় যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে, তা আগে কখনও দেখা যায়নি৷

২০১৫ সাল থেকে ১৮৩ জন গর্ভবতী মায়ের ওপর এ পরীক্ষা চালানো হয়৷ ৯৩ নারীকে দেয়া হয় ভায়াগ্রা, বাকিদের দেয়া হয় প্লাসিবো নামের অন্য এক ওষুধ৷

ভায়াগ্রা গ্রহণকারীদের মধ্যে ১৯ জনের সন্তান ভূমিষ্ট হওয়ার পরই মারা যায়৷ এর মধ্যে ১১ শিশুর মৃত্যু হয়েছে ফুসফুসে অতিরিক্ত রক্তচাপে, যা ভায়াগ্রার কারণেই হয়েছে বলে ধারণা গবেষকদের৷ আরো ৬ শিশুর ফুসফুসে সমস্যা থাকলেও তাঁরা বেঁচে আছে৷

অন্যদিকে প্লাসিবো গ্রুপের ৯০ বাচ্চা মৃত্যুবরণ করলেও, তাঁদের কারোরই ফুসফুসে সমস্যা ছিল না৷ এই গ্রুপের বেঁচে থাকা বাচ্চাদের তিনজনের ফুসফুসে একই ধরনের সমস্যা থাকলেও, তাঁদের সবাই বেঁচে আছে৷

এরই মধ্যে পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে তার ভিত্তিতেই পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে, তা ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন এএমসির গবেষকরা৷

ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ফিজেল প্রথম ভায়াগ্রা নিয়ে আসে বাজারে৷ সাধারণত, পুরুষদের যৌন উত্তেজক হিসেবে এর ব্যবহার হয়ে থাকে৷

এডিকে/জেডএইচ (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন