1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
হেফাজতে ইসলামীর হরতাল চলাকালে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছেছবি: Munir Uz Zaman/AFP/Getty Images

হেফাজতের হরতাল: হামলা, সংঘর্ষে নিহত অন্তত ২

হারুন উর রশীদ স্বপন ঢাকা
২৮ মার্চ ২০২১

হেফাজতের হরতালে রবিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অন্তত দুইজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে৷ পৌর এলাকায় ওই দুই জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সাংবাদিক উজ্জ্বল চক্রবর্তী৷ তবে পুলিশ বলেছে তাদের কাছে এধরনের কোনো খবর নেই৷

https://p.dw.com/p/3rIcZ

হরতাল চলাকালে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষ, বাস-ট্রেনে হামলা এবং আগুন দেয়ার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে হেফাজতে ইসলামের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হচ্ছে৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ট্রেনে এবং বিভিন্ন সরকারি স্থাপনায় হামলা ও আগুন দেয়া হয়েছে৷ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসহ কয়েকটি মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ আছে, বন্ধ আছে রেল যোগাযোগ৷

‘‘পুলিশের সাথে সংঘর্ষে পৌর এলাকায় দুইজন নিহত হয়েছে’’

পুলিশ র‌্যাব ও বিজিবির সাথে সরকার সমর্থক হরতাল বিরোধীরাও মাঠে আছে৷ বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষ অব্যাহত আছে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে ট্রেন ভাঙচুর ও আগুনের ঘটনার পর সিলেট, নোয়াখালী চট্টগ্রামের মধ্যে রেল যোগাযোগ বন্ধ আছে৷ চট্টগ্রামগামী সোনারবাংলা এক্সপ্রেসে ভাঙচুর চালানো হয়৷ ওই ঘটনায় ১০ জন যাত্রী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিক উজ্জ্বল চক্রবর্তী জানান যে সকাল ১০টার পর থেকে এই হামলা ও ভাঙচুর ঘটনা শুরু হয়৷ তারা ৩০ টিরও বেশি সরকারি ও বেসরকারি স্থাপনায় হামলা ও আগুন দিয়েছে৷ প্রেসক্লাব, ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ সংগীত অ্যাকাডেমি এবং একটি মন্দিরেও হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে৷

তিনি বলেন, ‘‘হামলার সময় শহরে পুলিশ, র‌্যাব বা বিজিবিকে তেমন প্রতিরোধ করতে দেখা যায়নি৷''
চক্রবর্তী বলেন, ‘‘বিকেলে আমি পুলিশের সাথে সংঘর্ষে পৌর এলাকায় দুইজন নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত হয়েছি৷ তাদের একজনের নাম আল-আমীন এবং আরেকজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷’’

হেফাজতে ইসলামের মুখপাত্র মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী জানান, তারা নিহত হওয়ার খবর শুনেছেন৷ তবে সদর সার্কেলের অ্যাডিশনাল এসপি মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন রেজা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘কতগুলো স্থাপনায় আগুন ও হামলা হয়েছে সে হিসাব এখনো আমরা পাইনি৷ কোনো হতাহতের খবরও জানা নাই৷ আমরা জনগণের জানমাল রক্ষায় সর্বাত্মক চেষ্টা করছি৷’’

টানা তিন দিনের মতো ব্রাহ্মণবাড়িয়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরে বিরোধিতায় এই সংঘাত-সংঘর্ষ চলছে৷ এর আগে শুক্র ও শনিবারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোট ছয়জন নিহত হয়েছে৷ আর চট্টগ্রামে পাঁচজন৷

নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড থেকে মিশরাইল পর্যন্ত অবরোধের কারণে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ আছে সকাল থেকে৷ ওই এলাকায় পুলিশ-বিজিবির সাথে হেফাজত কর্মীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ ও গাড়িতে আগুনের খবর পাওয়া গেছে৷ সেখানে তারা টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক বন্ধ করে দেয়৷ পুলিশের সাথে সরকার সমর্থকরাও মাঠে আছে৷ সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন৷ দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে৷ ওইসব এলাকায় পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও গুলি ছুড়েছে৷

নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক আমির হোসাইন স্মিথ জানান, সকাল থেকেই হেফাজতের কর্মীরা সড়ক অবরোধ করেন৷ আরও ওই এলাকায় বিপুল সংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে৷ সকালে পুলিশের সাথে হরতাল সমর্থকদের পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ রাখতে দুইবার বৈঠকও হয়েছে৷ কিন্তু পরিস্থিতি শান্ত থাকেনি৷ হরতাল সমর্থকরা ৩০টির মত গাড়িতে ভাঙচুর করেছে৷ এখন বিকল্প পথে যানবাহন চলাচল করছে৷

নারায়ণগঞ্জের এডিশনাল এসপি মোস্তাফিজুর রহমান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমরা পরিস্থিতি শান্ত রাখার সর্বাত্মক চেষ্টা করছি৷ কোনো হতাহতের খবর এখনো আমরা পাইনি৷’’

হেফাজতে ইসলামের অর্থ সম্পাদক মনির হোসাইন কাসেমি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে অবরোধকারীদের সঙ্গে আছেন৷ তিনি দাবি করেন, ‘‘আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হেলমেট বাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা করেছে৷ সেই কারণেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত৷ 

‘‘আমরা জনগণের জানমাল রক্ষায় সর্বাত্মক চেষ্টা করছি’’

তিনি অভিযোগ করেন, ‘‘ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ গুলি চালিয়েছে৷ প্রায় অর্ধশত আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে৷ ঢাকা-মাওয়া রোডের কুচিয়ামরায় মধুপুরের পীর আবদুল হামিদ গুলিতে আহত হয়েছেন৷’’

এর বাইরে নোয়াখালীতে ফেনী-নোয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করা হয়েছে৷ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে অবরোধ অব্যাহত আছে৷
হেফাজতে ইসলামের মুখপাত্র ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী অভিযোগ করেন, ‘‘আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ হামলা করছে৷ গুলি চালাচ্ছে৷ আমরা হতাহতের অনেক খবর পাচ্ছি৷’’
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘যারা এই অরাজকতা সৃষ্টি করছে তাদের কঠোর হাতে দমনের জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷ এই কাজে হেফাজতের সাথে জামায়াত, শিবির ও বিএনপিও যুক্ত হয়েছে৷’’

তবে তিনি পুলিশের সাথে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীদের হামলায় অংশ নেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেন৷ তিনি আরো বলেন, ‘‘মিডিয়া তাদের উসকে দিচ্ছে৷’’

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য
স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

 KMAsks135: Khaled Muhiuddin Asks 135

মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান