হৃদযন্ত্রই বিকল হয়েছিল এরিকসনের | বিশ্ব | DW | 14.06.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ফুটবল

হৃদযন্ত্রই বিকল হয়েছিল এরিকসনের

ইউরো কাপ খেলতে নেমে মাঠেই হার্ট অ্যাটাক। ডেনমার্কের এরিকসন এখনো হাসপাতালে, তবে আগের চেয়ে সুস্থ।

ডেনমার্কের মিডফিল্ডার ক্রিশ্চিয়ান এরিকসনের হৃদযন্ত্রেই সমস্যা হয়েছিল। রোববার স্পষ্ট করলেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের বক্তব্য, কেন আচমকা মাঠে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হলেন সে বিষয়টিও এখনো চিকিৎসকদের কাছে স্পষ্ট নয়।

শনিবার ইউরো কাপের গ্রুপ বি-র ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন এরিকসন। ওই দিন ডেনমার্কের প্রথম ম্যাচ ছিল ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে। ম্যাচের ৪৩ মিনিটের মাথায় আচমকাই মাটিয়ে লুটিয়ে পড়েন এরিকসন। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এরিকসন প্রায় চলেই গেছিলেন। বিশেষ পদ্ধতিতে ফের তার হৃদযন্ত্র চালু করা হয়। সামান্য দেরি হলে তাকে ফেরানো যেত না।

কেন হলো হার্ট অ্যাটাক

চিকিৎসকদের কাছে এখনো স্পষ্ট নয়, কেন এরিকসনের হৃদযন্ত্র বিকল হলো। কোনোরকম সংঘর্ষে জড়িয়েও এ ঘটনা ঘটেনি। আচমকাই তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। হাসপাতালে বহু পরীক্ষা হয়েছে তার। কিন্তু এখনো কারণ বোঝা যায়নি। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সম্পূর্ণ সুস্থ হতে এরিকসনের বেশ কিছুদিন সময় লাগবে।

খেলা চলায় প্রতিবাদ

এরিকসনের ওই ঘটনার পরে সাময়িক ভাবে খেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। পরে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন শুনে ফের খেলা চালু করা হয়। ডেনমার্কের কোচ অবশ্য রোববার বলেছেন, তাদের জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, তারা ফের টিম মাঠে নামাতে চান কি না। তিনি রাজি হয়ে যান। কিন্তু পরে তার মনে হয়েছে, টিম মাঠে নামানো উচিত হয়নি। বস্তুত, ডেনমার্কের ফের খেলতে নামা নিয়ে দেশের ভিতর বিতর্ক শুরু হয়েছে।

আরো একটি বিষয় নিয়ে সামান্য বিতর্ক হচ্ছে। এরিকসন মাঠে পড়ে যাওয়ার পর প্রায় ১৫ মিনিট পরে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। কেন অতটা সময় অপেক্ষা করা হলো, তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স)