‘হিলারিকে গুলি করা উচিত′ | বিশ্ব | DW | 10.08.2016
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘হিলারিকে গুলি করা উচিত'

মুখে যে তাঁর লাগাম নেই, সে কথা আগেই জানা ছিল৷ কিন্তু বেফাঁস মন্তব্যের মাত্রা যে কতটা হতে পারে, তার কোনো সীমা দেখা যাচ্ছে না৷ এবার তিনি পরোক্ষভাবে নিজের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হিংসার প্ররোচনা দিলেন৷

ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ রিপাবলিকান দলের এই প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী শুধু বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের সমালোচনার পাত্র নন৷ তাঁকে ঘিরে তাঁর নিজের দলেই সমালোচনা, অস্বস্তি, অসহায় বোধ বেড়েই চলেছে৷ একের পর এক বিষয়ে বেফাঁস মন্তব্যের জের ধরে তাঁকে ‘বিপজ্জনক' বলে মনে করছে কিছু মহল৷ দলমতনির্বিশেষে অনেকে বলছেন, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট পদের যোগ্য নয়৷

এবারের বিতর্কের বিষয় ছিল ব্যক্তিগত মালিকানায় বন্দুক রাখার অধিকার৷ এই অধিকারর প্রবক্তারা বার বার সংবিধানের দোহাই দেন৷ বর্তমান পরিস্থিতিতে অ্যামেরিকায় বেড়ে চলা হিংসাত্মক ঘটনার প্রেক্ষাপটে সেই অধিকার কতটা প্রাসঙ্গিক, সেই বিষয়টি এড়িয়ে যান৷ দলমতনির্বিশেষে যারাই এ ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণের কথা বলে, তাদের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ চালায় অ্যামেরিকার ‘গান লবি'৷ প্রভাবশালী এই শিবিরের প্রতি জোরালো সমর্থন দেখাচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

এক সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেছেন, হিলারি সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনী অনুচ্ছেদ বাতিল করতে চান৷ প্রেসিডেন্ট হলে হিলারি যদি পছন্দমতো বিচারপতি নিয়োগ করেন, সে ক্ষেত্রে বন্দুকের প্রবক্তাদের আর কিছুই করার থাকবে না৷ তারপর কথাচ্ছলে ট্রাম্প বলেন, এমনটা হলে হিলারি ও তার মনোনীত বিচারপতিদের গুলি করা উচিত৷ তাঁর সমর্থকরা বলছেন, আক্ষরিক অর্থে নয়, এই বাক্যের মাধ্যমে তিনি রাজনৈতিকভাবে তাঁর প্রতিপক্ষকে খতম করার ডাক দিয়েছেন৷

বলা বাহুল্য, এমন মন্তব্যের ফলে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে৷ ক্লিন্টন-এর শিবির ট্রাম্প-এর ‘বিপজ্জনক' ভাষার নিন্দা করে দাবি করেছে, যে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীদের যেন কোনো অবস্থায় হিংসার ডাক না দেয়৷

একই দিনে ক্লিন্টনের এক জনসভায় এমন একজনকে দেখা গেছে, যার উপস্থিতি দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে৷ যে আততায়ী অরল্যান্ডো শহরে সমকামীদের এক নাইটক্লাবে গুলি চালিয়ে ৪৯ জনকে হত্যা করেছিল, তার বাবা সেদ্দিক মতিনকে দর্শকের আসনে বসে তাকতে দেখা যায়৷ ক্লিন্টন শিবির জানিয়েছে, সেখানে বসার জন্য কাউকে আলাদা করে আমন্ত্রণ করা হয় না৷

এসবি/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন