1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: Courtesy of The Gordon Museum, Kings College London

স্মৃতি ফেরাতে গবেষণা

২ মে ২০১৪

‘মেমরি স্টিমুলেটার'-এর মাধ্যমে এবার হারিয়ে যাওয়া স্মৃতি ফিরে আনার উদ্যোগ নিচ্ছেন মার্কিন সামরিক গবেষকরা৷ তবে প্রযুক্তিগতভাবে এই অসাধ্য সাধন করতে পারলেও নৈতিক, আইনগত ও সামাজিক অনেক প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে৷

https://p.dw.com/p/1Bs2A

প্রতিদিনই আমরা কত কিছু ভুলে যাই৷ তার জন্য কত কথাই না শুনতে হয়! তবে ভুলে যাওয়াটাই তো স্বাভাবিক৷ কিন্তু কোনো দুর্ঘটনার ফলে মাথায় ধাক্কা লেগে যদি স্মৃতিভাণ্ডারের একটা অংশ পুরোপুরি হারিয়ে যায়, সেটা একটা চিন্তার বিষয় বৈকি৷ মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গবেষকরা এবার মস্তিষ্কে ইমপ্লান্ট বসিয়ে সেই ‘মিসিং লিংক' আবার ভরাট করার তোড়জোড় করছেন৷

খুবই গোপন সেই কর্মসূচি৷ মানুষের মস্তিষ্কের রহস্য উন্মোচন করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ১০ কোটি ডলার অঙ্কের যে উদ্যোগ শুরু করেছেন, তারই আওতায় সামরিক গবেষকরা চার বছরের এক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন৷ তাঁরা এমন ‘মেমরি স্টিমুলেটার' তৈরি করতে চান, যা স্মৃতিভাণ্ডারকে উসকে দিতে পারবে৷ তাঁদের মূল উদ্দেশ্য, যুদ্ধক্ষেত্রে আহত সৈন্যদের স্মৃতিশক্তি ফিরিয়ে আনা৷ তবে আল্সহাইমার রোগের রোগীদের উপরও এই প্রযুক্তির প্রয়োগ করা যেতে পারে৷

প্রযুক্তি যদি এই অসম্ভবকে সম্ভবও করে তোলে, তার পরেও নৈতিকতার প্রশ্ন থেকে যায়৷ মানুষের মস্তিষ্কে এমন ‘ম্যানিপুলেশন'-এর পরিণাম কী হতে পারে, সেটাও চিন্তার বিষয়৷ কারণ সে ক্ষেত্রে মানুষের আত্মপরিচয় বদলে যেতে পারে৷ বাছাই করে নির্দিষ্ট কোনো স্মৃতি ফিরিয়ে আনা বা মুছে দেওয়া সম্ভব হলে এর অপব্যবহার অনিবার্য বলে মনে করছেন অনেকে৷

Symbolbild Gehirn
দুর্ঘটনার ফলে মাথায় ধাক্কা লেগে যদি স্মৃতিভাণ্ডারের একটা অংশ পুরোপুরি হারিয়ে যায়, সেটা একটা চিন্তার বিষয় বৈকিছবি: Fotolia/marksykes

অন্যদিকে এমন প্রযুক্তির প্রবক্তারা বলছেন, শুধু অ্যামেরিকায়ই ৫০ লক্ষ আল্সহাইমার-এর রোগী আছেন৷ ইরাক ও আফগানিস্তানে মস্তিষ্কে মারাত্মক আঘাত পেয়েছেন প্রায় ৩ লক্ষ সৈন্য৷ এদের জীবন বদলে দিতে পারে ‘মেমরি স্টিমুলেটার'৷ অনেক সৈন্য মস্তিষ্কে আঘাতের কারণে নিজের পরিবারের লোকজনকেও চিনতে পারছেন না৷ তাদের সেই হারানো স্মৃতি আবার জাগিয়ে তোলা যেতে পারে৷

মস্তিষ্ক ও স্মৃতিভাণ্ডারের মতো জটিল কাঠামো নিয়ে কাজ যে অত্যন্ত কঠিন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না৷ হারানো স্মৃতি ফিরিয়ে আনতে বিশেষজ্ঞরা তাই নানা পথের কথা বলছেন৷ প্রথম পথ হলো মস্তিষ্কের যে অংশে স্মৃতি ভরা থাকে, সেই ‘হিপোক্যাম্পাস'-এর মধ্যে প্রয়োজনীয় স্পন্দন সৃষ্টি করা৷ তবে নির্দিষ্ট কোনো স্মৃতি জাগিয়ে তুলতে হলে কোনো ব্যক্তির সুনির্দিষ্ট ‘মেমরি প্যাটার্ন' জানা প্রয়োজন৷ দ্বিতীয় এবং আরও সহজ পথ হলো খুঁটিনাটি বিষয়ের প্রতি মনোযোগ না দিয়ে মস্তিষ্ককে আঘাত পাওয়ার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা৷

মার্কিন সামরিক গবেষকরা শেষ পর্যন্ত কতটা সফল হবেন, হলেও সে ক্ষেত্রে নৈতিকতা, আইন ও সামাজিক প্রভাব সংক্রান্ত প্রশ্নগুলি কতটা গুরুত্ব পাবে – তা নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে৷

এসবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য

এই বিষয়ে আরো তথ্য

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

জয়সূচক গোল করার পর ভিনসেন্ট আবু বকরের উল্লাস

ব্রাজিলকে হারিয়ে ক্যামেরুনের বিদায়

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান