হাত-পা ঢাকা পোশাক পরে জার্মান জিমন্যাস্টদের প্রতিবাদ | বিশ্ব | DW | 27.07.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

হাত-পা ঢাকা পোশাক পরে জার্মান জিমন্যাস্টদের প্রতিবাদ

খেলাধুলায় নারীর ‘যৌনকরণের’ প্রতিবাদ জানাতে রোববার জার্মানির চার নারী জিমন্যাস্ট হাত-পা ঢাকা পোশাক পরে টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিয়েছেন৷

নারী জিমন্যাস্টরা সাধারণত বিকিনি-কাট লেওটার্ড (পোশাকের নাম) পরেন৷ কিন্তু জার্মান জিমন্যাস্ট সারাহ ফস, পাউলিন শ্যেফার, এলিজাবেথ জাইৎস ও কিম বুই হাত-পা ঢাকা লেওটার্ড পরেছিলেন৷

এ প্রসঙ্গে ২১ বছর বয়সি সারাহ ফস বলেন, ‘‘আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে, সবাই আরাম অনুভব করছে এবং আমরা সবাইকে দেখাতে চাই যে, তারা যা চায় তাই পরতে পারে এবং এতে তাদের সুন্দর দেখাবে, তাদের দারুণ অনুভূতি হবে, সেটা লম্বা লেওটার্ডই হোক কিংবা ছোট৷’’ তিনি বলেন, তারা রোল মডেল হতে চেয়েছিলেন৷

অন্য প্রতিযোগীরা জার্মান জিমন্যাস্টদের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন৷ নরওয়ের জিমন্যাস্ট জুলি এরিকসেন বলেন, ‘‘আমি মনে করি, এটা সত্যিই দারুণ যে এত বড় এক আয়োজনে তারা এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার সাহস দেখিয়েছে এবং বিশ্বের সব মেয়েকে দেখিয়ে দিয়েছে যে, তারা যা চায় তা-ই পরতে পারে৷’’

জার্মান জিমন্যাস্টরা গত এপ্রিলে প্রথমবারের মতো হাত-পা ঢাকা লেওটার্ড পরেছিলেন৷ সেই সময় জিমন্যাস্ট এলিজাবেথ জাইৎস ডয়চে ভেলেকে বলেছিলেন, ‘‘আমি চাই যে কোনো খেলায় মেয়েদের তাদের ইচ্ছেমতো পোশাক পরার সুযোগ থাকুক৷’’

আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় পা ঢাকা পোশাক পরার অনুমতি আছে৷ তবে এতদিন পর্যন্ত প্রায় সব ক্ষেত্রেই শুধু ধর্মীয় কারণে এমন পোশাক পরা হয়েছে৷

জার্মান জিমন্যাস্টরা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে যেতে পারেননি৷

জেডএইচ/এসিবি (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন