হত্যাচেষ্টা মামলায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তিন নেতা রিমান্ডে | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 24.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

হত্যাচেষ্টা মামলায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তিন নেতা রিমান্ডে

ডাকসু ভবনে ভিপি নুরুল হক নূর ও তার সঙ্গীদের ওপর হামলার ঘটনায় হত্যাচেষ্টা মামলায় গ্রেপ্তার মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তিন নেতার রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত৷

বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জানিয়েছে, ঢাকার মহানগর হাকিম মইনুল ইসলাম মঙ্গলবার পুলিশের পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানি করে তিন দিনের হেফাজত মঞ্জুর করেন৷

এই তিনজনের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত তূর্যকে সোমবার গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সংগঠনের দপ্তর সম্পাদক মেহেদী হাসান শান্তকে গ্রেপ্তার করা হয় মঙ্গলবার সকালে।

নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রইচ হোসেন সোমবার মধ্যরাতে শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আটজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে

আসামিরা হলেন- মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি এএসএম আল সনেট, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত তূর্য, এফ রহমান হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইমরান সরকার এবং কেন্দ্রীয় নেতা মাহবুব হাসান নিলয়।

অজ্ঞাতপরিচয় আরও ৩৫ জনকে মামলার এজাহারে আসামি করা হয়েছে।

এ মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১৪৩, ৪৪৭, ৪৪৮, ৩২৩, ৩২৪, ৩২৫, ৩২৬, ৩০৭, ৪২৭ ও ১০৯ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে, যার মধ্যে ৩০৭ ধারায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগের কথা বলা হয়েছে।

ডাকসু ভবনে হামলায় আহত নূরসহ ২৮ জনকে সেদিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাদের মধ্যে পাঁচজন মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বাকিরা চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেছেন।

ওই হামলার সঙ্গে যারাই জড়িত থাক না কেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন বলে সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এডিকে/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

সংশ্লিষ্ট বিষয়