হংকং বিক্ষোভ নিয়ে ‘অপপ্রচার′, ২১০ ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 23.08.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

হংকং

হংকং বিক্ষোভ নিয়ে ‘অপপ্রচার', ২১০ ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ

হংকং আন্দোলন নিয়ে সমন্বিতভাবে ‘অপপ্রচার' ছড়ানোর অভিযোগে ২১০টি ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ আসল পরিচয় আড়াল করতে ভিপিএন ও অন্যান্য পদ্ধতি ব্যবহার করে ওই অ্যাকাউন্টগুলো চালানো হচ্ছিল৷

ইউটিউব বলছে, হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভকারীদের আন্দলনের বিরুদ্ধে একটি মোর্চা গঠনে কাজ করছিল এমন ইউিটউব চ্যানেলগুলো নিস্ক্রিয় করে দেয়া হয়েছে৷

গুগলের সিকউরিটি থ্রেট এনালাইসিস গ্রুপের শেন হান্টলি এক অনলাইন বার্তায় বলেছেন, হংকংয়ের চলমান বিক্ষোভ নিয়ে সমন্বিতভাবে একই ধরনের ভিডিও আপলোড করায় ২১০টি ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ আমরা দেখেছি এসব অ্যাকাউন্ট তাদের উৎপত্তিস্থল আড়াল করতে ভিপিএন এবং অন্যান্য পদ্ধতি ব্যবহার করেছে৷

হংকংয়ের বিক্ষোভ দমাতে চীন সরকার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালাচ্ছে এমন অভিযোগ তুলে সম্প্রতি তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয় টুইটার ও ফেসবুক৷ একই ধরনের অভিযোগে ইউিটিউব ২১০টি চ্যানেল বন্ধ করে দিলেএ এজন্য সরাসরি চীনকে সরকারকে দায়ী করেনি৷

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভুল তথ্য ছাড়ানো নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই সমালোচনা হচ্ছে৷

১৯৯৭ সালে ব্রিটিশদের থেকে চীনের কাছে হস্তান্তরের পর হংকংয়ের ইতিহাসে গত কয়েক মাসের এ প্রতিবাদকেই সবচেয়ে বড় বলা হচ্ছে৷

চীনের কাছে হস্তান্তরের সময় যুক্তরাজ্য শহরটির স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধীনতা এবং স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা অটুট রাখার প্রতিশ্রুতি আদায় করে নিয়েছিল৷ হংকংয়ের কারণেই চীনকে ‘এক দেশ, দুই ব্যবস্থাপনার' নীতিতে চলতে হচ্ছে৷

এসআই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন