‌সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতসেরা পশ্চিমবঙ্গ | বিশ্ব | DW | 06.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

‌সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতসেরা পশ্চিমবঙ্গ

সদ্য জাতীয় সংসদে পেশ করা হয়েছে ভারতে পথ দুর্ঘটনার খতিয়ান৷ সেই দুর্ঘটনা এবং প্রাণহানির তালিকার শীর্ষে পশ্চিমবঙ্গ!‌

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

২০১৮ সালে সারা ভারতে ২২,৬৫৬টি সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে৷ তার মধ্যে ২০১৫ জনের প্রাণহানি ঘটেছে সড়কপথে গর্ত থাকার কারণে৷ ভারতীয় সংসদে দেশের পরিবহণ ও জাতীয় সড়ক মন্ত্রকের সদ্য পেশ করা এই তথ্য থেকে আরো জানা যাচ্ছে যে, প্রতি বছরই সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে৷ ২০১৬ সালে ১৫,৭৪৬ জন সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন, ২০১৭ সালে সেটা বেড়ে হয় ২০,৪৫৭ এবং পরের বছর আরো ২২০০ বেশি৷ জাতীয় এবং রাজ্য সরকারের তরফ থেকে প্রতি বছর ঢাকঢোল পিটিয়ে পথ-নিরাপত্তা সপ্তাহ পালন এবং প্রচারের পরও এই বেহাল ছবি৷ এবং তার যে রাজ্যওয়াড়ি হিসেব, সেখানে সবার ওপরে পশ্চিমবঙ্গ৷ ২০১৮ সালে এই রাজ্যে ২৬১৮ জন পথ দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন৷

অডিও শুনুন 01:55

কলকাতায় হোক বা পশ্চিমবঙ্গে, লেন ড্রাইভিং নেই: প্রিয়ঙ্কর

কেন দুর্ঘটনায় এত মৃত্যু?‌ নিয়মিত শহরে এবং শহরের বাইরে, হাইওয়েতে গাড়ি চালান তথ্য-প্রযুক্তি পেশাদার প্রিয়ঙ্কর মুখার্জি৷ গাড়ি নিয়ে তিনি প্রায়শই রাজ্যের বাইরে যান৷ তাঁর অভিজ্ঞতা বলছে, শহরের থেকে বেশি দুর্ঘটনা হয় হাইওয়েতে৷ শহরে দুর্ঘটনা হলেও প্রাণহানির হার কম থাকে৷ হাইওয়েতে প্রায় প্রতি ক্ষেত্রেই কেউ না কেউ মারা যান, বা মারাত্মকভাবে আহত হন৷ তার প্রধানতম কারণ, হাইওয়েতে উল্টো মুখে গাড়ি চালানোর প্রবণতা৷ একমুখী রাস্তায় যে ধরনের বেপরোয়া কাজ যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে৷ শহর থেকে দূরের রাস্তায় হঠাৎ রাস্তার ওপর গরু-ছাগল এসে পড়াটাও অনেকসময়ই দুর্ঘটনার কারণ হয় বলে প্রিয়ঙ্করের অভিজ্ঞতা৷ এছাড়া বিশেষ করে শীতকালে কুয়াশার মধ্যে ঠেলা, রিকশা, সাইকেলের মতো ধীরগতির যান হঠাৎ সামনে চলে এলেও বিপত্তি হয়৷ আর ‘‘‌কলকাতায় হোক বা পশ্চিমবঙ্গে, লেন ড্রাইভিং নেই৷ লেন কেউ মানে না,’’ বললেন প্রিয়ঙ্কর৷

অডিও শুনুন 02:10

পশ্চিমবঙ্গে আমরা কেউ কাউকে মানি না: বিমল গুহ

শহর এলাকায় যে যানটি সবথেকে বেশি ট্রাফিক আইন ভাঙে বলে দুর্নাম, সেটি হলো ট্যাক্সি৷ বেপরোয়া ট্যাক্সিও কি দুর্ঘটনার কারণ হয় না?‌ বেঙ্গল ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশনের বিমল গুহ যদিও বলছেন, রাস্তায় এত গাড়িই এত দুর্ঘটনার কারণ৷ তাঁরা প্রস্তাব দিয়েছিলেন, বড় শহরে ব্যক্তিগত গাড়ি চলতে দেওয়ার ক্ষেত্রে জোড়-বিজোড় নিয়ম চালু হোক, যে নিয়ম পরে রাজধানী দিল্লিতে চালু করে সুফল পাওয়া গেছে৷ কিন্তু কলকাতায় বা পশ্চিমবঙ্গে সেই পরামর্শে কান দেওয়া হয়নি৷ ‘‘‌সরকারেরও দোষ আছে!‌’’ বলছেন বিমলবাবু৷ ড্রাইভাররা যে নিয়ম মেনে চালাচ্ছেন না, সেটা মেনে নিয়েও তিনি সমালোচনা করেছেন পুলিশ-প্রশাসনের, যারা গাড়ির চালককে ‘‌কেস দিতে’ অথবা তার বদলে ঘুষ খেতেই ব্যস্ত থাকে!‌ তবে সবার ওপরে রয়েছে আইনের পরোয়া না করার প্রবণতা৷ পশ্চিমবঙ্গে কেন দুর্ঘটনার হার বেড়েই চলেছে, এই প্রশ্নে বিমল গুহর জবাব, ‘‘‌পশ্চিমবঙ্গে আমরা কেউ কাউকে মানি না!‌’’

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন