স্মৃতি ফেরানোর ওষুধ আবিষ্কারে সাফল্য আসছে | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 18.06.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞান পরিবেশ

স্মৃতি ফেরানোর ওষুধ আবিষ্কারে সাফল্য আসছে

স্মৃতিশক্তি থাকা বা না থাকাকে সুইচ টিপে চালু করার মত অবস্থায় চলে যাচ্ছে বিজ্ঞান৷ অন্তত ইঁদুরদের ওপর গবেষণায় তেমন একটা সম্ভাবনা তৈরি করে ফেলেছেন বিজ্ঞানীরা৷ এতে উপকৃত হবেন বহু রোগী৷

প্রথমিক পরীক্ষাটি চালানো হয়েছে ইঁদুরের ওপর

প্রথমিক পরীক্ষাটি চালানো হয়েছে ইঁদুরের ওপর

ডিমেনশিয়া৷ মস্তিষ্কের এই রোগে মানুষ দ্রুত স্মৃতিশক্তি খুইয়ে ফেলে৷ কখনো স্বল্প সময়ের জন্য৷ কখনো বা দীর্ঘ সময় ধরে৷ এছাড়া আরও অনেক কারণেই চলে যেতে পারে স্মৃতিশক্তি৷ তার মধ্যে মস্তিষ্কে চোট আঘাতের সমস্যা তো আছেই৷ এই স্মৃতিভ্রংশের রোগের হাত থেকে মানুষকে রক্ষা করতে গবেষণা চালিয়ে বিজ্ঞানীদের একটি দল বেশ ভালো ফল পেয়েছেন৷

দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিটেব্রি স্কুল অব এঞ্জিনিয়ারিং - এর বায়ো মেডিক্যাল দপ্তরের গবেষকরা চালিয়েছিলেন এই গবেষণা৷ প্রাথমিকভাবে তাঁরা ইঁদুরের মস্তিষ্কের দুটি অংশের নিউরনের মধ্যে তথ্য আদানপ্রদানের যে উপায় রয়েছে, তার মধ্যে এই গবেষণাটি চালান৷ দেখা যায়, যে ওষুধটি তাঁরা ব্যবহার করছেন, তার ফল হচ্ছে ঠিক আলো জ্বালাবার সুইচের মতন৷ সুইচ টিপলে বাতি জ্বলার মত, ওষুধ দিলে ইঁদুর তার স্মৃতি ফিরে পাচ্ছে, আবার না দিলে চলে যাচ্ছে সেই স্মৃতি৷

দুইভাবে কাজ করতে পারে এই নতুন গবেষণার ফসল৷ বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক দলের প্রধান থিওডর বার্গার৷ জানিয়েছেন, স্বল্প সময়ের জন্য নষ্ট হয়ে যাওয়া স্মৃতি তো বটেই, দীর্ঘমেয়াদের হারিয়ে যাওয়া স্মৃতিও ফিরিয়ে আনছে এই নতুন গবেষণা৷ তবে, কেবলই ইঁদুরদের মধ্যে৷

কাজ তাই শেষ হয়নি এখনও৷ ইঁদুরদের ক্ষেত্রে সাফল্য মিলেছে৷ এবার কাজ শুরু হবে বাঁদরদের নিয়ে৷ বাঁদররা যদি এই ওষুধে ইঁদুরদের মতই সাড়া দেয়, তার পরের ধাপ অবশ্যই আমরা৷ মানে মানুষরা৷ আর মানুষের স্মৃতি ফেরাতে তখন নেমে পড়বে নতুন এই গবেষণার ফসল৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়