স্কুলকে না জানিয়ে ছুটিতে যাওয়ায় বাবা-মায়ের জরিমানা | বিশ্ব | DW | 21.05.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

স্কুলকে না জানিয়ে ছুটিতে যাওয়ায় বাবা-মায়ের জরিমানা

জার্মানিতে আনুষ্ঠানিকভাবে স্কুল ছুটি হওয়ার আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে না জানিয়ে সন্তানকে ছুটি কাটাতে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে ১০ শিক্ষার্থীর বাবা-মা-কে জরিমানা করেছে পুলিশ৷ বাভেরিয়া রাজ্যের এক বিমানবন্দরে এই ঘটনা ঘটেছে৷

জার্মানিতে স্কুল পালানোকে বড় অপরাধ হিসেবে দেখা হয় এবং ছয় থেকে ১৬ বছর বয়সি সন্তানদের মা-বাবাকে সন্তানকে স্কুলে না পাঠানোর জন্য দায়ী করা যেতে পারে৷

ডেয়ার স্পিগেল ম্যাগাজিন জানিয়েছে, আনুষ্ঠানিকভাবে স্কুল ছুটি শুরু হওয়ার আগের সপ্তাহে ছয় জন পুলিশ বাভেরিয়া রাজ্যের মেমিঙ্গেন বিমানবন্দরে উপস্থিত শিশুদের পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে৷

কোনো পরিবারের সঙ্গে স্কুলে যেতে পারে এমন বয়সি শিশু থাকলে সেই পরিবারের কাছে প্রথমে ‘ভালোভাবে’ সন্তানের স্কুলের নাম জানতে চেয়েছে পুলিশ৷ তারপর ঐ স্কুলকে ফোন করে পুলিশ ঐ শিক্ষার্থীর ছুটির অনুমতি আছে কিনা, জানতে চেয়েছে৷ এভাবে পুলিশ ১০টি পরিবার পেয়েছে, যারা স্কুল থেকে অনুমতি নেয়নি৷ এই অভিযোগে পুলিশ তাঁদের জরিমানা করেছে৷ মিউনিখভিত্তিক প্রচারমাধ্যম ‘বায়ারিশার রুন্ডফুংক’ বলছে, স্কুল পালানোর জরিমানা এক হাজার ইউরো পর্যন্ত হতে পারে৷

পুলিশের এক মুখপাত্র ডেয়ার স্পিগেলকে জানিয়েছেন, ‘‘আমরা অনেকদিন ধরে বিষয়টি জানি এবং তাঁদের ধরা আমাদের অন্যতম কাজ৷’’ তিনি বলেন, ‘‘(ফোন করার পর) শিক্ষক যদি বলেন যে, তিনি শিক্ষার্থীর উপস্থিতি চান, তাহলে আমরা ঐ শিক্ষার্থীকে স্কুলে নিয়ে যাই৷’’ তবে সম্প্রতি ধরা পড়া অভিভাবকদের শুধু জরিমানা করা হয়েছে৷

নিয়ম অনুযায়ী, জার্মানিতে আনুষ্ঠানিকভাবে স্কুলে ছুটি শুরু হওয়ার আগে যদি ছুটির প্রয়োজন হয় তাহলে বাবা-মা-কে স্কুলের প্রধান শিক্ষক বরাবর আবেদন করতে হয়৷

জার্মানিতে স্কুল পালানোর বিষয়ে কঠোর নিয়ম-কানুন থাকলেও অনেক মা-বাবা ভিড় এবং চড়ামূল্যের বিমানভাড়া এড়াতে আগেই ছুটিতে যাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন৷

আলিস্টেয়ার ওয়ালশ/জেডএইচ

গতবছরের ২১ জুলাইয়ের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়