সোনিয়া-মমতা বৈঠক, ছিলেন রাহুলও | বিশ্ব | DW | 28.07.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

সোনিয়া-মমতা বৈঠক, ছিলেন রাহুলও

কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন রাহুল গান্ধীও।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করলেন সোনিয়া গান্ধী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করলেন সোনিয়া গান্ধী।

সোনিয়ার সঙ্গে প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে বৈঠক করার পর মমতা জানিয়েছেন, খুবই ইতিবাচক বৈঠক হয়েছে। তারা দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছেন। পেগাসাস সহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা হয়েছে। রাহুল গান্ধীও বৈঠকে ছিলেন। মমতা জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে একটা ইতিবাচক ফল পাওয়া যাবে বলে তিনি আশা করছেন।

এদিন সাংবাদিকদের কাছে মমতা বলেন, তিনি জ্যোতিষি নন। তাই বিরোধী জোটের মুখ কে হবেন, কে নেতৃত্ব দেবেন, তা তিনি জানেন না। তিনি চান বিরোধীরা একজোট হোক। বিজেপি-র প্রার্থীর বিরুদ্ধে সম্মিলিত বিরোধী প্রার্থী লড়াই করুন।

মমতা জানিয়েছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে ইচ্ছুক নন। তার কলকাতায় একটা ছোট 'সুইট হোম' আছে। তিনি চান, বিরোধীরা একজোট হোক। তিনি বলেন, ''আমি লিডার নই, ক্যাডার। আমি স্ট্রিট ফাইটার। তবে সকলকে একজোট হতে হবে। একা আমি কিছু করতে পারব না।'' মমতা জানান, ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের কিছুদিন বাকি আছে। সামনে উত্তর প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পাঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচন। সেখানে বিরোধীরা এক হয়ে লড়ুক।

মমতা এদিন তার সংসদীয় দলের বৈঠক করেন। বৈঠকের পর দলের লোকসভা সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ''সাংসদরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান।  এখন দেশের মধ্যে তিনি বিরোধীদের প্রধান মুখ। তিনিই একমাত্র বিজোপি-কে হারাতে পারেন। তাই আমরা প্রস্তাব নিয়েছি, মমতার নেতৃত্বে লড়ে নরেন্দ্র মোদীকে উৎখাত করতে চাই।''

জিএইচ/এসজি(মুখ্যমন্ত্রীর সাংবাদিকদের সঙ্গে বার্তালাপ)