সেলেব্রিটিদের ওপর ‘উদ্দেশ্যমূলক আক্রমণ′ চলছে | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 04.09.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সেলেব্রিটিদের ওপর ‘উদ্দেশ্যমূলক আক্রমণ' চলছে

তারকাদের নগ্ন ছবি প্রকাশের ঘটনাটি পুরোপুরি ‘উদ্দেশ্যমূলক আক্রমণ'৷ অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্সসহ বিনোদন জগতের বেশ কয়েকজন তারকার নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি যাচাই করে এ কথাই বলেছে অ্যাপল৷

অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স, মডেল কেট আপটন, সংগীত শিল্পী অ্যাভ্রিল লাভিন, যুক্তরাষ্টের ফুটবল তারকা হোপ সোলোর মতো সেলেব্রিটির নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি নিয়ে বিনোদন জগত এবং সংবাদমাধ্যমে বেশ তোলপার চলছে৷ কাজটি যে হ্যাকারদের, তা অনুমান করা সহজ৷ তবে কম্পিউটার, কম্পিউটার যন্ত্রাংশ ও সফটওয়্যার নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাপল ইনকর্পোরেট' শুধু অনুমান করে কথাটা বলেনি৷ যুক্তরাষ্ট্রের এই প্রতিষ্ঠান এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, বিষয়টি সম্পর্কে জানার সঙ্গে সঙ্গে প্রকৌশলীদের কেমন করে নন্দিত তারকাদের অস্বস্তিতে ফেলার মতো ঘটনাটি ঘটলো – তা খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল৷

অ্যাপল-এর বিবৃতি অনুযায়ী, প্রায় চল্লিশ ঘণ্টা অক্লান্ত পরিশ্রম করে তাঁরা নিশ্চিত হয়েছেন যে, তারকাদের ই-মেল, ফেসবুক বা অন্য কোনো অ্যাকাউন্ট ‘হ্যাক' করেই স্বাভাবিক অবস্থায় অপ্রকাশ্য ছবিগুলো ইন্টারনেটে প্রকাশ করা হয়েছে৷

যার অর্থ, প্রতিষ্ঠানটির কোনো দুর্বলতার কারণে তা হয়নি৷

অ্যাপল জানিয়েছে, তাদের সিস্টেম, অর্থাৎ আইক্লাউড বা ‘ফাইন্ড মাই আইফোন'-এর সিস্টেমে কোনো ত্রুটি ছিল না৷ বরং হ্যাকাররাই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের পাসওয়ার্ড বা অন্য কোনো ব্যক্তিগত তথ্য খুঁজে বের করে নগ্ন ছবিগুলো প্রকাশ করেছে৷

অ্যাপল মনে করে, সেলেব্রিটিদের নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয়৷ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘চল্লিশ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে তদন্ত করার পর এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত যে এটি (হ্যাকারদের) উদ্দেশ্যমূলক এক আক্রমণ৷''

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন