সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুন, মৃত পাঁচ | বিশ্ব | DW | 22.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুন, মৃত পাঁচ

বৃহস্পতিবার রাতে পরপর দুই বার আগুন লাগে ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সেরাম ইনস্টিটিউটের নির্মীয়মান ভবনে। মৃত পাঁচ।

সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুন।

সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুন।

এখন পুরোদমে করোনার ভ্যাকসিন কোভিশিল্ড তৈরি হচ্ছে পুণার সেরাম ইনস্টিটিউটে। বৃহস্পতিবার রাতে সেখানে একটি নির্মীয়মান ভবনে পর পর দুই বার আগুন লাগে। প্রথমবারের আগুনে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভ্যাকসিন তৈরির কাজে কোনো বাধা আসেনি, তা আগের মতোই চলছে।

অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার সঙ্গে হাত মিলিয়ে কোভিশিল্ড তৈরি করছে সেরাম। ভারতে তো বটেই, প্রতিবশী দেশগুলিতেও তা পাঠানো হয়েছে। সেরাম ইনস্টিটিউটে এখন সারা দিন সারা রাত কাজ চলছে। তারই মধ্যে এই ভয়াবহ আগুন লাগল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম আগুন লাগে। তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন আয়ত্ত্বে আসে। আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়। কিন্তু পাঁচজনকে বাঁচানো যায়নি। সেরাম-কর্তা আদার পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, ''খুবই খারাপ খবর। শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানাচ্ছি।'' তিনি আগে জানিয়েছিলেন, কয়েকজন আটকা পড়েছেন, তাঁদের উদ্ধার করাই প্রথম কাজ। কী ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা পরে দেখা হবে। সেরামের তরফে মৃতের পরিবারদের ২৫ লাখ টাকা করে দেয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

পুণায় একশ একর জমির উপর সেরামের কারখানা। যে বাড়িতে আগুন লেগেছিল, সেটা ছিল মঞ্জরি কমপ্লেক্সে। যেখানে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে, সেখান থেকে মিনিট দুয়েক গাড়ি চালিয়ে গেলেই মঞ্জরি। সেখানে একটি ভবনে প্রথমে একটি তলায় আগুন লাগে। তখন কিছু শ্রমিক কাজ করছিলেন। আগুন দ্রুত ছড়ায়। তিন ঘণ্টা ধরে চেষ্টার পর তা নিয়ন্ত্রণে আসে। তার কিছুক্ষণ পর আবার আগুন লাগে। তবে সেই আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আসে। কেন আগুন লাগল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

জিএইচ/এসজি(পিটিআই, এএনআই)

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন