সিরিয়ায় কঠোর ব্যবস্থার হুমকি দিলেন ট্রাম্প | বিশ্ব | DW | 10.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সিরিয়া

সিরিয়ায় কঠোর ব্যবস্থার হুমকি দিলেন ট্রাম্প

সিরিয়ায় কথিত রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপের যথোপযুক্ত প্রতিক্রিয়া জানানোর ঘোষণা দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ সোমবার জাতিসংঘের বিশেষ অধিবেশন শেষে তিনি বলেছেন, ‘‘সুবিচার হয়েছে এটা এখন বিশ্বকে দেখতে হবে৷’’

শনিবার সিরিয়ার দুমায় বিদ্রোহীদের সবশেষ শক্তিশালী ঘাঁটি লক্ষ্য করে রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপের অভিযোগ ওঠে৷ অভিযোগের তীর বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনীর দিকে৷ তবে সিরিয়া এবং তাদের মিত্র রাশিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷ শনিবারের হামলায় এ পর্যন্ত অন্তত ৪৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে৷

সোমবার বিষয়টি নিয়ে আয়োজিত জাতিসংঘের বিশেষ অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্রের দূত নিকি হ্যালি বলেন, ‘‘আমরা এখন এমন পর্যায়ে পৌঁছেছি যখন আসলে বিশ্বকে দেখাতে হবে যে, সুবিচার হয়েছে৷’’ অধিবেশনে জাতিসংঘে ফ্রান্সের দূত বলেন, ‘‘(রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের) লাল রেখা অতিক্রম করা হয়ে থাকলে এর একটা প্রতিক্রিয়া হতেই হবে৷’’

তবে রাশিয়া এ অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে৷ জাতিসংঘে রাশিয়ার দূত ভাসিলি নেবেনৎসিয়া দাবি করেন, অভিযোগ ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই তাঁর দেশ তদন্ত করে দেখেছে৷ কিন্তু অভিযোগের কোনো সত্যতা খুঁজে পাওয়া যায়নি৷ অর্থাৎ তাঁর মতে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্র পশ্চিমা দেশগুলো যে দাবি করছে দুমায় রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপ করা হয়েছে, তা একেবারেই সত্যি নয়৷ রুশ দূতের মতে, যুক্তরা্জ্যে সাবেক রুশ গোয়েন্দার ওপর স্নায়ু বিষ প্রয়োগের অভিযোগ তুলে যে ল্যাজে-গোবরে অবস্থা হয়েছে, তা আড়াল করার জন্যই পশ্চিমা দেশগুলো এখন সিরিয়ায় রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপের অভিযোগ তুলছে৷

রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধের আন্তর্জাতিক সংস্থা ওপিসিডাব্লিউ জানিয়েছে, তারা দুমায় রাসায়নিক বোমা নিক্ষেপের অভিযোগটি তদন্ত করে দেখবে৷ তাদের এ সিদ্ধান্তকেও স্বাগত জানিয়েছে রাশিয়া৷ জাতিসংঘে রাশিয়ার বিশেষ দূত ভাসিলি নেবেনৎসিয়া জানিয়েছেন তাঁর দেশ ওপিসিডাব্লিউ-কে তদন্তে সার্বিক সহায়তা করবে৷

তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ‘‘এখন এটা মানবতার প্রশ্ন৷ আমরা মানবতা নিয়ে কথা বলছি৷ যা ঘটছে তা আর ঘটতে দিতে পারি না৷’’ তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্র ‘বাধ্য হয়ে’ এখন প্রতিক্রিয়া জানাবে৷ সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘‘সামরিকভাবে আমাদের সামনে অনেক পথ খোলা আছে৷ কী করা হবে তা শিগগিরই জানানো হবে৷’’

এসিবি/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়