সিডনির মাঠে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার সিরাজ | বিশ্ব | DW | 11.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

সিডনির মাঠে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার সিরাজ

অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট মাঠে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার ভারতের পেসার মহম্মদ সিরাজ। এর আগে বুমরাকে লক্ষ্য করেও বর্ণবাদী মন্তব্য করা হয়েছিল।

সিডনি টেস্ট চলার সময় বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার ভারতীয় ক্রিকেটার সিরাজ।

সিডনি টেস্ট চলার সময় বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার ভারতীয় ক্রিকেটার সিরাজ।

ভারতের বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংস তখন চলছে। ডিপ ফাইন লেগে ফিল্ডিং করছিলেন মহম্মদ সিরাজ। সেই সময় তাঁকে লক্ষ্য করে গ্যালারি থেকে উড়ে আসে খুবই আপত্তিকর কিছু বর্ণবাদী মন্তব্য। তখন বল করছিলেন যশপ্রীত বুমরা। হঠাৎ দেখা যায় সিরাজ ছুটে আসছেন। অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে বুমরাকে বল করতে মানা করেন। সিরাজ ছুটে যান স্কোয়ার লেগ আম্পায়ারের কাছে। উত্তেজিত হয়ে কিছু বলতে থাকেন। তাঁর সঙ্গে যোগ দেন রাহানে সহ অন্য ক্রিকেটাররা। তিনি ওই বর্ণবাদী মন্তব্যের কথা আম্পায়ারকে জানাচ্ছিলেন।

আম্পায়ার জানতে চান, কোথা থেকে এই মন্তব্য এসেছে। সিরাজ তা দেখিয়ে দেন। আম্পায়াররা তখন পুলিশকে নির্দেশ দেন, যারা ওই মন্তব্য করেছে, তাদের বাইরে বের করে দেয়ার জন্য। নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ নির্দেশ মেনে কাজ করে। দশ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। ভারতীয় ক্রিকেটাররা পিচ ঘিরে প্রতিবাদ জানান। তাতে সামিল হন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার টিম পেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অস্ট্রেলিয়ার এক ক্রিকেট কর্তা সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, সিরাজকে 'ব্রাউন ডগ' ও 'বিগ মাঙ্কি' বলা হয়েছিল। এটা খুব খারাপ ধরনের বর্ণবাদী মন্তব্য।

অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট মাঠে এই ধরনের বর্ণবাদী মন্তব্য নতুন নয়। এই টেস্টেই আগে বুমরা ও সিরাজের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী মন্তব্য করা হয়েছে। তা পরে ম্যাচ রফারি ডেভিড বুনকে জানিয়েছিল ভারত। তারপর তাঁদের বলা হয়, ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়ারকে তা জানাতে। ২০০৮ সালে মাঙ্কিগেট বিতর্কও হয়েছিল। তখন অবশ্য অভিযুক্ত ছিলেন ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিং। তদন্তের পর বলা হয়, তিনি নির্দোষ।

এবার অবশ্য দর্শকদের কাছ থেকে বর্ণবাদী মন্তব্য এসেছে, যা নিয়ে সোচ্চার ক্রিকেট দুনিয়া। বিরাট কোহলি বলেছেন, ''অস্ট্রেলিয়ার দর্শকরা অসভ্য আচরণ করে। আমি অনেকবারই তার মুখে পড়েছি।'' আরেক ক্রিকেটার অশ্বিনও বলেছেন, ''সিডনিতে বর্ণবাদী মন্তব্য নতুন নয়।''

অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড অবশ্য ভারতীয় বোর্ডের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে। ভারতীয় বোর্ড তাদের জানিয়েছে, দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে।

জিএইচ/এসজি(পিটিআই, এপি, রয়টার্স)

সংশ্লিষ্ট বিষয়