সাহসী নারীর কারণে উচিত শিক্ষা! | বিশ্ব | DW | 24.10.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

সাহসী নারীর কারণে উচিত শিক্ষা!

দিনে দুপুরে রাস্তার পাশে এক ব্যক্তি যে দুষ্কর্ম করতে বসেছিল, তাতে করে উপযুক্ত ব্যবস্থাই নেয়া হয়েছে তার বিরুদ্ধে৷ ঘটনা গত ১৮ অক্টোবরের, ঘটনাস্থল ভারতের কেরালা রাজ্য৷

ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওই বলে দিচ্ছে, ওই ব্যক্তির অপরাধ৷ রাস্তার ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা থেকে পাওয়া এই ছবি পুলিশের হাতে পৌঁছায়৷ আর সেখান থেকেই ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ে অন্তর্জালের দুনিয়ায়৷

একটি আবাসিক এলাকার নির্জন গলিপথ ধরে এক তরুণী ব্যাগ হাতে সম্ভবত বাড়ি ফিরছিলেন৷ সেখানে আগে থেকে ওঁত পেতে বসে ছিল ৩৩ বছর বয়সি এক লোক৷ তরুণী গলির শেষ মাথায় যেতেই তাঁকে রাস্তার ওপর ফেলে নির্যাতনের চেষ্টা করে সে৷

তবে তরুণী এক ঝটকায় নিপীড়ককে সরিয়ে দেয়৷ আর তাঁর এই দৃঢ় মনোবলেই ঘাবড়ে গিয়ে দৌড়ে পালায় নিপীড়ক৷ 

এই ঘটনা জানাজানি হওয়ায় নড়েচড়ে বসে পুলিশ৷ ‘‘যৌন নিপীড়ন, লাঞ্ছনা বা নারীর ওপর জোরপূর্বক বল প্রয়োগের চেষ্টা'র অভিযোগে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছ পুলিশ৷

সমাজে অপরাধ প্রবণতা চিরতরে নির্মূল করা সম্ভব নয়, তবে এ ধরনের তাৎক্ষণিক শাস্তির দৃষ্টান্ত অপরাধ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে, আইন শৃংখলা বাহিনীর ওপর মানুষের আস্থা বাড়ে, আইনের প্রতিও শ্রদ্ধাশীল হয় মানুষ- এই ঘটনা আবারও প্রমাণ রাখলো এই সত্যগুলোর৷ 

এএম/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন