সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, অ্যাপে নিষেধাজ্ঞায় কমছে অনলাইন ফ্রিডম | বিশ্ব | DW | 15.11.2016
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, অ্যাপে নিষেধাজ্ঞায় কমছে অনলাইন ফ্রিডম

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার সোশ্যাল মিডিয়া এবং ম্যাসেজিং অ্যাপ্লিকেশনের উপর নিষেধাজ্ঞার পরিধি বাড়াচ্ছে, যা ইন্টারেনট স্বাধীনতার উপর বড় আঘাত বলে মনে করছে এক অ্যাক্টিভিস্ট গ্রুপ৷ জানা গেছে সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে৷

ফ্রিডম হাউসের প্রকাশিত ‘দ্য ফ্রিডম অন দ্যা নেট' শীর্ষক গবেষণা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে গত ছয় বছর ধরে অনলাইন ফ্রিডম ক্রমশ পড়তির দিকে রয়েছে৷ হোয়াটসঅ্যাপসহ বিভিন্ন কমিউনিকেশন অ্যাপ এবং সোশ্যাল মিডিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা বাড়ায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করেন অ্যাক্টিভিস্টরা৷

গবেষণাটির পরিচালক সঞ্জয় ক্যালি বলেন, ‘‘ফেসবুক ও টুইটারের মতো জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো গত কয়েকবছর ধরেই নিষেধাজ্ঞার শিকার হচ্ছে৷ এখন সরকারগুলো হোয়াটসঅ্যাপ এবং টেলিগ্রামের মতো ম্যাসেজিং অ্যাপের উপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে৷''

অ্যাক্টিভিস্টদের মধ্যে ম্যাসেজিং অ্যাপের ব্যবহার বাড়ছে, কেননা, অনেক এনক্রিপটেড অ্যাপ রয়েছে যেগুলো সহজে মনিটর করা যায় না বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে৷ ক্যালি বলেন, ‘‘অস্থিরতা চলাকালে সাধারণ মানুষ যাতে সংবাদ আদানপ্রদান করতে না পারে সেটা অ্যাপগুলোর উপর নিষেধাজ্ঞার অন্যতম কারণ৷''

গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রস্তুতের সময় ৬৫টি দেশের পরিস্থিতি মূল্যায়ন করা হয়েছে, যেগুলোর মধ্যে ৩৪টি দেশে গত বছরের জুন থেকে ‘ইন্টারনেট ফ্রিডম' পড়তির দিকে রয়েছে বলে প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে৷ পরিস্থিতির অবনতি ঘটা দেশগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে উগান্ডা, বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, ইকুয়েডর এবং লিবিয়া৷ একই সময়ে শ্রীলংকা এবং জাম্বিয়ায় পরিস্থিতির উন্নয়ন ঘটেছে৷

এআই/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন