1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: DW

সামরিক রোবটের প্রদর্শনী

২ অক্টোবর ২০১২

প্রযুক্তির উন্নয়নের কারণে সামরিক বাহিনীতে রোবটের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে৷ সুইজারল্যান্ডের থুন শহরে দিন কয়েক আগে হয়ে গেলো সামরিক বাহিনীর রোবট নিয়ে একটি প্রদর্শনী৷ এর আয়োজন করে জার্মানির ফ্রাউনহফার ইন্সটিটিউট৷

https://p.dw.com/p/16IXA

সামরিক, পুলিশ এবং দমকল এই তিন বাহিনীর সদস্যদের কাজ কর্ম প্রায়ই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে থাকে৷ কেমিকেল, রেডিওঅ্যাক্টিভ কিংবা অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের মুখোমুখি হতে হয় এই তিন বাহিনীর লোকদের৷ তাই এই তিন বাহিনীতে রোবটের ব্যবহার কীভাবে আরও বাড়ানো যায় সেই চেষ্টা চলছে অনেকদিন ধরে৷ বিপজ্জনক কাজগুলো যাতে রোবটকে দিয়েই করানো যায়, আর ভারি যন্ত্রপাতিগুলোও যাতে রোবট দিয়েই আনা নেওয়া করা যায়, সেটার জন্য রোবটের মানোন্নয়ন করা দরকার৷ সেগুলো নিয়েই গত ২৪শে সেপ্টেম্বর থেকে সুইজারল্যান্ডের থুন শহরে হয়ে গেল তিনদিন ব্যাপী মেলরোব বা মিলিটারি রোবট প্রদর্শনী৷ এতে রোবট তৈরির প্রতিষ্ঠানগুলো ছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরাও অংশ নেন৷

Bildergalerie Autonome Militärroboter
সুইজারল্যান্ডের থুন শহরে হয়ে গেল তিনদিন ব্যাপী মেলরোব বা মিলিটারি রোবট প্রদর্শনীছবি: DW

এবারের মেলরোবে নিয়ে আসা হয় অনেক ধরণের স্বয়ংক্রিয় রোবট গাড়ি যেগুলো নিজে থেকেই পথ খুঁজে নিতে পারে৷ যেমন মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয়ের থর্সটেন ল্যুটেল ও তাঁর দল নিয়ে এসেছে ফোক্সভাগেন এর টুয়ারেগ মডেলের একটি গাড়ি৷ এই নিয়ে পাঁচবার এলেন তিনি মেলরোবে৷ তিনি জানান, ‘‘গাড়িটিতে রয়েছে একটি সেন্সর বসানো ক্যামেরা যেটা দিয়ে আশেপাশে দেখা যাবে৷ রয়েছে লেজার স্ক্যানার যার মাধ্যমে আশেপাশের গাড়ির দূরত্ব মাপা সম্ভব হয়৷ এতে রয়েছে মানুষের অন্তঃকর্ণের মতো ক্ষমতা সম্পন্ন যন্ত্র ফলে এটি দু'দিকে ভারসাম্য বজায় রাখতে পারে৷ এতে বসানো রয়েছে জিপিএস - ফলে দূরত্ব ও গতি মাপা সম্ভব হয়৷''

ক্যামেরা ও সেন্সরের মাধ্যমে তথ্য কম্পিউটারের সহায়তায় বিশ্লেষণ করতে পারবে টুয়ারেগ গাড়িটি৷ ফলে কখন ব্রেক কষতে হবে, ঘুরতে হবে সেটা নিজে থেকেই সিদ্ধান্ত নেবে৷ তবে এই ক্ষেত্রে গাড়িটি আরেকটি গাড়িকে অনুসরণ করবে, বলেন থর্সটেন ল্যুটেল৷ তাঁর ভাষায়, ‘‘টুয়ারেগটিকে আগের গাড়ির পেছনে পেছনে যেতে হবে৷ যদিও এটি জানে না কোথায় যাচ্ছে৷ এটি জানে শুধু যা-ই ঘটুক না কেন আমাকে সামনের গাড়িকে অনুসরণ করতে হবে৷''

Bildergalerie Autonome Militärroboter
গবেষকরা বলছেন, মানুষের কাজের বিকল্প হওয়ার চেষ্টা করলেও জরুরি অবস্থাতে মানুষ রোবটের চেয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারেছবি: DW

ফ্রাউনহফার ইন্সটিটিউটের গবেষক দলের অন্যতম সদস্য ফ্রাংক হ্যোলার৷ তিনিও এই মেলরোবে যোগ দেন৷ তিনি ও তাঁর দল নিয়ে এসেছে একটি চেইন দেওয়া রোবট গাড়ি, যেটি মিলিটারি ট্যাংকের ছোট খাট্টো একটি সংস্করণ বলা চলে৷ এটিও নিজে থেকে চলতে পারে টুয়ারেগটির মতোই৷ ফ্রাংক হ্যোলার বললেন, ‘‘এটি লেজারের মাধ্যমে পাওয়া ছবিগুলোকে এক করে৷ এটি নিজে থেকেই তার লক্ষ্যের উদ্দেশ্যে চলতে পারে৷ যখন কোনো কানাগলির মধ্যে পড়ে যায় তখন এটি তার নিজের ছবির ম্যাপ থেকে বোঝার চেষ্টা করে কোনদিকে রাস্তা আছে৷ তারপর সেই অনুযায়ী এটি রাস্তা খুঁজে নেয় এবং চলতে শুরু করে৷''

এটির পরীক্ষার সময় আবার গবেষকরা নানা পদ্ধতি অবলম্বন করে দেখেন৷ যেমন রাস্তায় মাঝে গাছের গুড়ি ফেলে দেখেন চেইন ওয়ালা গাড়িটি নিজে থেকে রাস্তা বের করতে পারে কিনা৷ তবে সমস্যা হলো যখন রাস্তায় কোনো গর্ত থাকে৷ যেমন কাদা মাখা রাস্তায় চলতে গেলে এটি আটকে যেতে পারে, এছাড়া রাস্তার দুইপাশে লম্বা উঁচু ঘাস থাকলে পথ চিনতে গাড়িটির সমস্যা হতে পারে৷ এই ব্যাপারে ফ্রাংক হ্যোলার বলেন, ‘‘এরকম একটি ঢালু রাস্তায় গাড়িটি পড়েছিল যেখানে সামনের পথ উপরে উঠে গেছে৷ আবার ডানে-বামের লম্বা ঘাসও একই উচ্চতা উঠে গেছে৷ লেজার চারপাশের ছবি তুললেও সেটি কোনো পথ খুঁজে পায় নি৷ কারণ তার কাছে সবই একই উচ্চতার৷ ফলে সেটি ঘাসের মধ্যেই ঢুকে পড়ে আর পরে কাদায় আটকে পড়ে থাকে৷''

Week 40/12 Science2: Autonom durch rauhes Gelände - Schweizer Leistungsschau von - MP3-Mono

গবেষকরা বলছেন, মানুষের কাজের বিকল্প হওয়ার চেষ্টা করলেও জরুরি অবস্থাতে মানুষ রোবটের চেয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারে৷ তবে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ কাজের জন্য রোবটই অগ্রাধিকার পাচ্ছে৷ কারণ তাতে করে প্রাণহানি এড়ানো সম্ভব৷

প্রতিবেদন: ফাবিয়ান স্মিড্ট/আরআই

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য

এই বিষয়ে আরো তথ্য

স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়

সম্পর্কিত বিষয়

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

মুসিয়ালার পাস থেকেই সমতা ফেরান বদলি হেসেবে নামা নিকলাস ফ্যুলক্রুগ

স্পেনের সঙ্গে ড্র করে আশা জিইয়ে রাখলো জার্মানি

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান