সাবধান! ফেসবুকে পাসওয়ার্ড চুরির ভাইরাস | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 18.03.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

সাবধান! ফেসবুকে পাসওয়ার্ড চুরির ভাইরাস

ফেসবুকের ৪০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারীকে এবার লক্ষ্যবস্তু বানালো হ্যাকাররা৷ উদ্দেশ্য এসব ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড এবং গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহ৷ আর তাই পাসওয়ার্ড চুরির এক অভিনব পন্থা বের করেছে তারা৷ জানাচ্ছে ম্যাকাফি৷

default

ফাইল ফটো

এন্টি ভাইরাস সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ম্যাকাফি জানায়, হ্যাকররা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের কাছে ই-মেল পাঠাচ্ছে যাতে লেখা আছে - ‘আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নতুন করে সাজানো হয়েছে'৷ শুধু তাই নয়, কথিত নতুন অ্যাকাউন্টে ঢোকার পাসওয়ার্ড পেতে ই-মেলে সংযুক্ত একটি ফাইলের উপর ক্লিক করতেও বলা হচ্ছে৷

ম্যাকাফি'র দাবি, কেউ যদি সংযুক্ত ফাইলটি কম্পিউটারে চালু করে তাহলে তা অনেক ক্ষতিকর সফটওয়্যার কম্পিউটারে ঢুকিয়ে দেবে, যার মধ্যে পাসওয়ার্ড চুরির প্রোগ্রামও রয়েছে৷

বলাবাহুল্য, ফেসবুক ব্যবহারকারীদের বিপদে ফেলতে হ্যাকারদের এই চেষ্টা নতুন নয়৷ এর আগেও তাদেরকে দেখা গেছে ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ বার্তা সেবা ব্যবহার করে নানা জনকে বিব্রত করতে৷ তবে এবার তারা বেছে নিয়েছে ব্যবহারকারীদের আসল ই-মেল অ্যাড্রেস৷

ফেসবুক মুখপাত্র এই বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে রাজি নয়৷ অবশ্য, বুধবার সংস্থাটি তাদের ওয়েবসাইটে হ্যাকারদের ই-মেলের এ বিষয়টি নিজেরাই জানিয়েছে৷ এবং ব্যবহারকারীদের পরামর্শ দিয়েছে এধরণের ই-মেল পাবার সঙ্গে সঙ্গে তা মুছে ফেলতে, একইসঙ্গে বন্ধুদেরকেও বিষয়টি সম্পর্কে সতর্ক করতে৷

ম্যাকাফি জানিয়েছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত যে তথ্য তাদের কাছে আছে তাতে হ্যাকররা ফেসবুক সংক্রান্ত এই মেলটির কয়েক মিলিয়ন কপি ইউরোপ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং এশিয়া অঞ্চলে ছড়িয়ে দিয়েছে৷ সংস্থাটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ডেভ মার্কোস আশা করছেন, এভাবে হ্যাকাররা কয়েক মিলিয়ন কম্পিউটারে দখল নিতে পারবে৷ তিনি বলেন, ‘‘ফেসবুকের প্রায় ৪০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর মধ্যে যদি ১০ শতাংশও এই অ্যাটাচমেন্ট খোলার চেষ্টা করে, তাহলেও ৪০ মিলিয়ন মানুষের ক্ষেত্রে হ্যাকাররা সাফল্য পাবে৷''

মার্কোস জানান, ‘‘হ্যাকারদের ই-মেলটির শিরোনাম হচ্ছে, ‘ফেসবুক পাসওয়ার্ড রিসেট কনফার্মেশন কাস্টমার সাপোর্ট'''৷ তবে হ্যাকাররা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের এত ই-মেল ঠিকানা যোগাড় করলো কোন পদ্ধতিতে তা কিন্তু জানায়নি কেউই৷

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়