সাকিব আল হাসানকে করোনার ‘উপহার’ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 09.04.2020

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

সাকিব আল হাসানকে করোনার ‘উপহার’

করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় সারা বিশ্ব যখন লকডাউনে, তখন বারবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং খবরে ফিরছেন সাকিব৷ করোনা যেন নিষেধাজ্ঞা থেকে পরোক্ষ মুক্তি দিয়েছে তাকে৷

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী অক্টোবরে ক্রিকেটে ফেরার কথা সাকিব আল হাসানের৷ ধরে নেয়া হয়েছিল, এই সময়ে খুব মিস করতে হবে তাকে, তার অনুপস্থিতিতে খুব ভুগতে হবে বাংলাদেশ ক্রিকেটকে৷ সত্যিই ভুগেছে৷ বিশেষ করে পাকিস্তানের বিপক্ষে সাকিব থাকলে এমন ভরাডুবি হতো কিনা এই প্রশ্ন তো বারবার উঁকি দিয়েছেই৷ ভাগ্যিস করোনার কারণে সফরের শেষ পর্বটা আর হয়নি, হলে সাকিবহীনতায় বাংলাদেশের ক্রিকেটের অপুষ্টি, অপরিপক্কতা নির্ঘাত আরো খুল্লামখুল্লা হতো৷

আপাতত অক্টোবরের আগে আর কোনো সিরিজ খেলার সুযোগ নেই৷ অক্টোবরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ হবে কিনা তা বলা এখন সম্ভব নয়৷ তবে ছয় মাসের মধ্যে করোনা সংকটের সব চিহ্ন মুছে যাবে, সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে এমনটি নিশ্চিত করে বলাও অসম্ভব৷

তবে এটা নিশ্চিত যে করোনার কারণে মাঠে সাকিবকে অনেকটা কম সময় মিস করবে বাংলাদেশ দল, ফিটনেস আর ফর্ম ধরে রাখলে বাংলাদেশ দলকেও হয়তো অনেক কম মিস করবেন সকিব৷ 

নিষিদ্ধ হওয়ার পর থেকে ভক্তদের খুব মিস করছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন হয়ে ওঠা অলরাউন্ডার৷ করোনা এসে সেই আফসোসও ঘুচিয়েছে৷ এখন প্রায় নিয়মিতই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাজির হয়ে দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর খবর জানাচ্ছেন নিষিদ্ধ হওয়ার আগে বিশ্বকাপ মাতানো ক্রিকেটার৷ নিজের ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে দুস্থদের জন্য তহবিল সংগ্রহ করছেন, করোনা শনাক্তকরণ কিট পাঠাচ্ছেন হাসপাতালে৷ সংকট না এলে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর, নিষেধাজ্ঞার আড়ালে থেকেও মানুষের এত কাছে আসার সুযোগ কি সাকিব পেতেন?

করোনা কালেই আরেক সুখবর- আবার বাবা হয়েছেন সাকিব৷ যুক্তরাষ্ট্র থেকে এ খবরও নিজেই জানিয়েছেন ফেসবুকে৷ করোনা সংকটের আঁধারে যেন খুশির আলোও পাচ্ছেন সাকিব৷ 

সংশ্লিষ্ট বিষয়