সাকিবের পরিবারের ৫ সদস্য হাসপাতালে | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 21.03.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

সাকিবের পরিবারের ৫ সদস্য হাসপাতালে

অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের মা, শাশুড়ি এবং তিন সন্তান ঢাকায় হাসপাতালে৷ পরিবারের পাশে থাকতে সাউথ আফ্রিকা সফর থেকে দেশে ফিরে আসতে পারেন সাকিব, জানিয়েছেন হাবিবুল বাশার৷

সাকিব আল হাসান(ফাইল ছবি)

সাকিব আল হাসান(ফাইল ছবি)

বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিবেন মা শিরিন আক্তার আগে থেকেই হার্টের সমস‍্যায় ভুগছিলেন৷ অবস্থার অবনতি হওয়ায় কিছু দিন আগে তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ সাকিবের তিন সন্তানও এই হাসপাতালে ৷ একমাত্র ছেলে আইজাহ আল হাসান ও মেঝো মেয়ে ইরাম হাসান নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত এবং বড় মেয়ে আলাইনা হাসান ভুগছেন ঠাণ্ডা জ্বরে৷ সাকিবের শাশুড়ির চিকিৎসা চলছে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে৷তিনি ক‍্যান্সারে ভুগছেন৷ সন্তানদের নিয়ে সাকিবের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে৷ গত ফেব্রুয়ারিতে শেষ হওয়া বিপিএলের সময় তারা দেশে আসেন৷   

মানসিক ও শারীরিক অবসাদের জন‍্য খেলা উপভোগ করছেন না বলে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যেতে চাননি সাকিব৷ তবে কয়েক দিনের নাটকীয়তার পর সিদ্ধান্ত পাল্টে শেষ পর্যন্ত খেলার সিদ্ধান্ত নেন৷ সাউথ আফ্রিকার মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে দেশের প্রথম জয়ে হন ম‍্যাচ সেরা৷

এখন পরিবার যে অবস্থায় আছে তাতে খেলা চালিয়ে যাওয়া খুব কঠিন ভালো করেই বুঝতে পারছেন দলের সঙ্গে থাকা নির্বাচক বাশার৷ তিনি জানান, ইচ্ছে করলে পরিবারের পাশে থাকতে দেশে ফিরে যেতে পারেন সাকিব৷

‘‘ও এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি৷ ঢাকাতে নিয়মিত খবর রাখছে৷ কি সিদ্ধান্ত নেবে সেটা পুরোপুরি নির্ভর করছে ঢাকার পরিস্থিতির উপর৷ এখনও সাকিবের যাওয়া নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি৷ সোমবার সকালে ঢাকার অবস্থা বুঝে সিদ্ধান্ত নেবে সাকিব৷”

বাঁহাতি অলরাউন্ডারের পরিবারের কঠিন এই সময়ে বিসিবি পাশে থাকবে৷ হাবিবুল জানান, এই পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্তের ভার তার উপরই ছেড়ে দিয়েছেন তারা৷

‘‘এমন অবস্থায় বিসিবি সব ক্রিকেটারের পাশেই থাকে৷ সাকিব যদি প্রয়োজন মনে করে তাহলে চলে যাবে৷ পুরোটাই নির্ভর করছে তাদের (সাকিবের মা-সন্তানরা) অবস্থা কোন দিকে যাচ্ছে, এর উপর৷ এখন পর্যন্ত ফিরে যাওয়ার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি৷” জানান হাবিবুল বাশার৷

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়