সরকার নেই, মন্ত্রী-তালিকা প্রস্তুত | বিশ্ব | DW | 26.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

সরকার নেই, মন্ত্রী-তালিকা প্রস্তুত

জার্মানির এসপিডি দলের সদস্যরা ইতিবাচক রায় দিলে আগামী ৪ঠা মার্চ সরকার গঠনের পথ সুগম হয়ে যাবে৷ তার আগেই সম্ভাব্য মন্ত্রিসভায় দলের সদস্যদের নাম ঘোষণা করলেন ম্যার্কেল৷

আর মাত্র এক সপ্তাহের অপেক্ষা৷ তারপর ফয়সালা হয়ে যাবে৷ নির্বাচনের পর দীর্ঘ প্রায় ৫ মাসের অপেক্ষার পর জার্মানিতে সরকার গঠন করা সম্ভব হবে কিনা, এসপিডি দলের সদস্যদের ভোটের ফলাফল সেই প্রশ্নের জবাব দিয়ে দেবে৷ আরও বিলম্ব এড়াতে সরকার গড়ার প্রস্তুতি শেষ করছে আঙ্গেলা ম্যার্কেলের সিডিইউ দল৷ রবিবারই ম্যার্কেল সম্ভাব্য মন্ত্রিসভায় নিজের দলের মন্ত্রিদের নাম ঘোষণা করেছেন৷

সোমবার দলীয় সম্মেলনে কোয়ালিশন চুক্তি অনুমোদনের কাজ শেষ করতে চান তিনি৷ তবে সহযোগী সিএসইউ দল ও এসিপিডি এখনো তাদের বরাদ্দ মন্ত্রণালয়গুলির জন্য কোনো নাম ঘোষণা করছে না৷ সরকার গঠনের পথে শেষ বাধা দূর হবার পরই তারা মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করবে বলে জানিয়েছে৷

কোয়ালিশন চুক্তির ক্ষেত্রে অনেক ছাড় ও অর্থ মন্ত্রণালয় হারানোর কারণে সিডিইউ দলের মধ্যে ক্ষোভের কথা বিলক্ষণ জানেন ম্যার্কেল৷ তাঁর নেতৃত্ব নিয়ে সার্বিক সংশয় সম্পর্কেও তিনি সচেতন৷ দলীয় সম্মেলনে সমালোচকদের আক্রমণ প্রতিহত করতে তিনি তাই রবিবারই সম্ভাব্য মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করেছেন৷ সেই তালিকায় বেশ কিছু চমক রেখেছেন তিনি৷ আগের তুলনায় আরও বেশি নারী এবং তরুণ মুখ উঠে এসেছে৷ বিশেষ করে ৩৭ বছর বয়সি তরুণ নেতা ও ম্যার্কেলের সমালোচক বলে পরিচিত ইয়েন্স স্পানকে তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদ দিয়ে অনেককেই অবাক করেছেন৷ মন্ত্রী হিসেবে স্পান আর প্রকাশ্যে ম্যার্কেলের সমালোচনা করতে পারবেন না, এমনটাই মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা৷

সোমবার সিডিইউ দলের ১০০১ জন ডেলিগেট ম্যার্কেলের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাবেন বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে৷ এদিন দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচিত হবেন আনেগ্রেট কাম্প-কারেনবাউয়ার৷ এই সিদ্ধান্তও ম্যার্কেলের সমালোচকদের মুখ বন্ধ করবে বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে৷ সমালোচকদের ধারণা, তাঁদের চাপেই ম্যার্কেল শেষ পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক ও মন্ত্রীদের পদে এই নামগুলি বেছে নিয়েছেন৷ এর মাধ্যমে দলের বিভিন্ন শিবিরের ক্ষমতার প্রতিফলন ঘটছে বলে তাঁদের দাবি৷

বিরোধী দলগুলি অবশ্য ম্যার্কেলের মন্ত্রিসভার তালিকার সমালোচনা করেছে৷ তাদের মতে, মহাজোট সরকার গঠন হলে গুরুত্বপূর্ণ পদে উপযুক্ত ব্যক্তিদের নাম ঘোষণার বদলে দলে বিক্ষোভ সামলাতে হয়েছে ম্যার্কেলকে৷ সে ক্ষেত্রে সরকারের কাজকর্মেরও পূর্বাভাষ পাওয়া যাচ্ছে৷

এসবি/এসিবি (ডিপিএ, এএফপি)

গতবছরের ২৬ সেপ্টেম্বরের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন