‘সরকারের পেছনে লুকাবেন না’ | বিশ্ব | DW | 10.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

‘সরকারের পেছনে লুকাবেন না’

পোশাক শ্রমিকদের ওপর পুলিশি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত৷ কারখানা মালিকদের দ্রুত শ্রমিকদের সঙ্গে সমঝোতায় আসার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি৷

পোশাক শ্রমিকদের চলমান আন্দোলনে বেশ সরব বাংলাদেশে জার্মান রাষ্ট্রদূত পেটার ফারেনহলৎস৷ এক টুইটে বৃহষ্পতিবার ফারেনহলৎস শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরি ও নিরাপদ কর্মপরিবেশ তৈরির আহ্বান জানিয়েছেন৷ দুর্ঘটনা বিমা চালুর জন্য পোশাক কারখানা মালিকদের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘‘সরকারের পেছনে লুকাবেন না৷’’

বুধবার আরেক টুইটে দুর্ঘটনা বিমা চালুর ব্যাপারে জার্মান সরকার সহায়তা করতে প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান ফারেনহলৎস৷ এজন্য শ্রমিকের জন্য বছরে মাথাপিছু মাত্র কয়েক ডলার খরচ হবে বলে জানান তিনি৷

তৈরি পোশাকের সবচেয়ে বড় ক্রেতা রাষ্ট্রগুলোর একটি জার্মানি৷ ন্যায্য মজুরির দাবিতে ৬ জানুয়ারি থেকে সড়কে বিক্ষোভ করছেন পোশাক শ্রমিকরা৷ সরকারের নির্ধারণ করে দেয়া নতুন বেতন কাঠামো মালিকপক্ষ মানছে না বলে অভিযোগ তাঁদের৷

Botschafter in Ruanda Peter Fahrenholtz

জার্মান রাষ্ট্রদূত পেটার ফারেনহলৎস

৬ জানুয়ারি বিমানবন্দর সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন উত্তরার কয়েকটি কারখানার পোশাক শ্রমিকরা৷ এরপর প্রতিদিনই বিক্ষোভ চলছে বিভিন্ন জায়গায়৷ আন্দোলন শুরু হয়েছে সাভার, আশুলিয়া ও নারায়ণগঞ্জেও৷

৮ জানুয়ারি সাভারে বিক্ষোভরত শ্রমিকদের ওপর পুলিশ লাঠিচার্জ করলে নিহত হন সুমন নামের এক শ্রমিক৷ পরদিন সাভার হয়ে ওঠে রণক্ষেত্র৷ আশুলিয়া এলাকায় বন্ধ হয়ে যায় প্রায় অর্ধশত কারখানা৷ আজও বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা৷

ভিডিও দেখুন 03:25

পোশাক শ্রমিক বিক্ষোভ: ডিডাব্লিউ টিভির বিশ্লেষণ

দ্রুত সমাধানের আশ্বাস

তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি আট হাজার টাকা নির্ধারণ করে গত ২৫ নভেম্বর গেজেট প্রকাশ করে সরকার৷ ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে তা কার্যকর হওয়ার কথা৷ অর্থাৎ, জানুয়ারির বেতন নতুন কাঠামোয় পাবেন শ্রমিকরা৷ কিন্তু শ্রমিকদের অভিযোগ, কারখানায় মানা হচ্ছে না নতুন কাঠামো৷

নতুন সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী টিুপু মুনশি এবং শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান ৮ জানুয়ারি বিকালে পোশাক কারখানা মালিক, শ্রমিক ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন৷ বৈঠকের পর বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, নতুন মজুরি কাঠামোও পর্যালোচনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার৷ চলতি মাসের ঘাটতি সমন্বয় করে ফেব্রুয়ারিতে বেতন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী৷

এডিকে/এসিবি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন