সরকারি কর্মকর্তার শাস্তি | বিষয় | DW | 21.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

সরকারি কর্মকর্তার শাস্তি

গরীব-অসহায়দের জন্য সরকারের দেওয়া সাহায্যের তালিকায় স্ত্রী-কন্যার নাম থাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক আওয়ামী লীগ নেতাকে সমাজসেবায় সম্মাননা দেওয়ায় জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালককে বদলি করা হয়েছে৷

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের গরীব-অসহায়দের জন্য সরকারের দেওয়া ওএমএস কার্ডে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহ আলমের স্ত্রী মোছাম্মৎ মমতাজ আলম ও মেয়ে আফরোজাসহ স্বজনদের নাম ওঠানো হয়৷ শাহ আলম নিজেও ওএমএসের ডিলার ছিলেন৷

মো. শাহ আলমকে সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা দেওয়ার ঘটনায় জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাসুদুল হাসান তাপসকে বদলি করা হয়েছে৷ তাকে বরগুনা জেলায় বদলিকরে বুধবার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়৷

বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে তুমুল সমালোচনার মুখে গত ১৩ মে শাহ আলমের ওএমএস ডিলারশিপ বাতিল করা হয়৷ গত ২ জানুয়ারি সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য শাহ আলমকে সম্মাননা দেয় জেলা সমাজসেবা কার্যালয়৷ বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা শুরু হলে কোন প্রক্রিয়ায় সম্মাননার জন্য মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে তা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা করার জন্য গত ৩ জানুয়ারি উপ-পরিচালক মাসুদুল হাসান তাপসকে চিঠি দেন জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান৷

পরবর্তীতে তাপসের দেওয়া লিখিত ব্যাখ্যা ‘সন্তোষজনক না হওয়ায়' শাহ আলমকে সম্মাননা দেওয়ার ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থানেওয়ার জন্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবকে চিঠি দেন জেলা প্রশাসক৷চিঠিতে শাহ আলমকে সম্মাননা দেওয়ার ক্ষেত্রে দাপ্তরিক প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি বলে উল্লেখ করেন জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান৷

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

সংশ্লিষ্ট বিষয়