সম্পত্তি জব্দ হতে চলেছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের | বিশ্ব | DW | 21.11.2012
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

সম্পত্তি জব্দ হতে চলেছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের

দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামিদের সম্পদ ও ব্যাংকের হিসাব জব্দের নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷ এছাড়া দণ্ড কার্যকর করতে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, বিদেশে বাংলাদেশ মিশন ও বাংলাদেশ সরকারের নিয়োজিত বিদেশি ল ফার্মগুলোকে বলা হয়েছে তৎপর হতে৷

সপরিবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১২ জনের মধ্যে পাঁচ জনের ফাঁসি কার্যকর হয় ২০১০ সালের জানুয়ারি মাসে৷

Mörder von Ex Premierminister Shaikh Mujibur Rahman

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কয়েকজন

মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত বাকি সাতজনের মধ্য ছয়জন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পালিয়ে আছে৷ তাদের ধরতে ইন্টারপোলের মাধ্যমে এরই মধ্যে পরওয়ানা জারি করা হয়েছে৷ তারা যথাক্রমে রাশেদ চৌধুরী, নূর চৌধুরী, আব্দুর রশিদ, শরিফুল হক ডালিম, মোসলেমউদ্দন এবং আব্দুল মাজেদ৷ আর আজিজ পাশা পলাতক অবস্থায় জিম্বাবুয়েতে মারা গেছে বলে খবর৷ বুধবার আন্তঃমন্ত্রণালয় টাস্কফোর্সে সভায় তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা এবং তাদের সম্পদ জব্দ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে৷ সভাশেষে যা সাংবাদিকদের জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দিন খান আলমগীর৷

Mörder von Ex Premierminister Shaikh Mujibur Rahman

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কয়েকজন

আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ জানান, পলাতকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এবং বিদেশে বাংলাদেশ মিশনগুলোকে আরো সক্রিয় হতে বলা হয়েছে৷ আর ফৌজদারি আইনে দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতকদের বিরুদ্ধে যে সব ব্যবস্থা নেয়ার বিধান আছে, তার সবই নেয়া হচ্ছে৷ পলাতকরা যে সব দেশে আছে সেই সব দেশ যাতে তাদের ভিসা-পাসপোর্ট না দেয় তার ব্যবস্থা নিতেও তৎপরতা চালানো হবে৷

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট ঘাতকরা স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তাঁর ধানমন্ডির বাড়িতে সপরিবারে হত্যা করে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়