সব রাজনৈতিক সমস্যার কারণ অভিবাসন: জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | বিশ্ব | DW | 06.09.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

সব রাজনৈতিক সমস্যার কারণ অভিবাসন: জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জার্মানির সব রাজনৈতিক সমস্যার জন্য অভিবাসনকেই দায়ী করেছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্স্ট সেহোফার৷ কেমনিৎসে এক জার্মান নাগরিকের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে চরম ডানপন্থিদের বিক্ষোভের প্রতিও সমর্থন জানিয়েছেন তিনি৷

চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের দল সিডিইউ-এর সহযোগী রক্ষণশীল দল সিএসইউ-এর প্রধান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্স্ট সেহোফার৷ সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন, ‘‘অনেক মানুষই এখন তাঁদের সামাজিক সমস্যাকে অভিবাসন ইস্যুর সঙ্গে যুক্ত করছেন৷’’ তিনি বলেন, ‘‘জার্মানি যদি অভিবাসননীতিতে পরিবর্তন না আনে, তবে বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল জনগণের আস্থা হারাবে৷’’ তাই মানবতার কথা মাথায় রেখে অভিবাসী এবং জার্মান নাগরিকদের মধ্যে ভারসাম্য রাখার কথা বলেছেন তিনি৷ তবে সেহোফার বরাবরই অভিবাসনবিরোধী৷ কেমনিৎসে ডানপন্থিদের বিক্ষোভের বিরোধিতা না করাও তাঁর সেই মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ৷

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাইনিশে পোস্টকে বলেছেন, ‘‘যেসব মানুষ এই বিক্ষোভে হিটলার স্যালুট দেখিয়েছে, তাদের বিচার হওয়া উচিত এবং এক্ষেত্রে সিএসইউ অন্ধ নয়৷ তবে এই হত্যাকাণ্ডে মানুষ কেন বিচলিত এবং রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছে, সেই মানসিকতাটা আমরা বুঝতে পারছি৷ এবং তাদের এই বিক্ষোভের কারণে সবাইকে নাৎসি বলতে পারি না৷’’

তিনি ‘দ্য ভেল্ট’ পত্রিকাকে বলেছেন, ‘‘আমি যদি মন্ত্রী না হতাম, তাহলে আমিও তাঁদের সাথে রাস্তায় নামতাম৷ কিন্তু যারা কট্টরপন্থি, তাদের সমর্থনে নয়৷’’

তবে চ্যান্সেলর ম্যার্কেল কেমনিৎসের কট্টরপন্থিদের বিক্ষোভের স্পষ্টভাবে নিন্দা জানিয়েছেন৷ বলেছেন, ‘‘আমরা ছবি ও ভিডিওতে যা দেখেছি, তাতে প্রমাণ হয় যে, সাধারণ মানুষের প্রতি ঘৃণা প্রদর্শনই ছিল এই বিক্ষোভের মূল উদ্দেশ্য৷’’

নিকোল গোয়েবেল/এপিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন