1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
অপরাধবেলজিয়াম

সন্ত্রাসের পরিকল্পনা: বেলজিয়ামে চার কিশোর গ্রেপ্তার

৪ মার্চ ২০২৪

পুলিশ জানিয়েছে, চার কিশোর একে অন্যকে এই পরিকল্পনা নিয়ে মেসেজ করেছিল। তাদের কাছ থেকে অস্ত্র পাওয়া যায়নি।

https://p.dw.com/p/4d7rO
ব্রেসলসে বেলজিয়ামের পুলিশ।
বেলজিয়ামে পুলিশ হ্রাসেলস-সহ চার শহর থেকে চারজন কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে। ছবি: Elyxandro Cegarra/NurPhoto/picture alliance

বেলজিয়ামের পুলিশের বক্তব্য, চার কিশোর জেহাদি আক্রমণ নিয়ে বার্তা বিনিময় করেছিল। চার অভিযুক্তের মধ্যে তিনজন অপ্রাপ্তবয়স্ক ও একজন প্রাপ্তবয়স্ক। তার বয়স ১৮ বছর। ব্রাসেলস-সহ চারটি শহর থেকে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।

বার্তাসংস্থা এএফপি-কে প্রসিকিউটার্স অফিসের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সেই আক্রমণের পরিকল্পনা এতটাই বিস্তারিতভাবে করা হয়েছিল যে, তাতে পুলিশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে এবং হস্তক্ষেপ করা প্রয়োজন বলে মনে করে।

তিনি বলেছেন, এমন নয় যে, তারা কালই আক্রমণ করতো। কিন্তু তারা দ্রুত এই কাজ করতে চাইছিল।

পুলিশ চারজনের বাড়িতে তল্লাশি চালায়, মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করেছে। এখন সেখান থেকে তথ্য বিশ্লেষণ করা হবে। বাড়ি থেকে কোনো অস্ত্র বা বিস্ফোরক পাওয়া যায়নি।

২০১৬-র ঘটনার পর

২০১৬ সালে ব্রাসেলসের বিমানবন্দরে ও মেট্রো স্টেশনে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে ৩২ জন মারা গেছিলেন। তারপর থেকেই স্থানীয় কর্তৃপক্ষ রীতিমতো সতর্ক থাকে।

রোববার পুলিশ যে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে, তাকে সম্বাব্য জেহাদি সহিংসতা রুখতে বলে জানানো হয়েছে।

বেলজিয়ামের বিচারমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তরুণদের দ্রুত উগ্রপন্থার দিকে ঝুঁকে পড়ার ঘটনা নতুন নয়, এর আগেও এরকম হয়েছে।

বেলজিয়ামে এখন তৃতীয় পর্যায়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এর অর্থ হলো, সন্ত্রাসবাদী আক্রমণের ঝুঁকি আছে। চতুর্থ পর্যায়ের সতর্কতার অর্থ হলো, এই আক্রমণ আসন্ন।

জিএইচ/এসজি(এএফপি, ইএফই)