সন্ত্রাসী হামলা পরিকল্পনার সন্দেহে জার্মানিতে ইরাকি শরণার্থী আটক | বিশ্ব | DW | 30.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

সন্ত্রাসী হামলা পরিকল্পনার সন্দেহে জার্মানিতে ইরাকি শরণার্থী আটক

প্রায় এক মাসের তদন্ত শেষে বুধবার তিন ইরাকি শরণার্থীকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে জার্মান পুলিশ৷ এদের মধ্যে দু'জন বোমা বানানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, অন্যজন হামলার পরিকল্পনায় ছিলেন বলে অভিযোগ৷

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে দু'জন ২৩ বছর বয়সি শরণার্থী শাহীন এফ. এবং হার্শ এফ.৷ অন্যজনের বয়স ৩৬, নাম রউফ এস.৷

তদন্তকারীদের অভিযোগ, শাহীন ও হার্শ ইন্টারনেট থেকে বোমা বানানোর তথ্য সংগ্রহ করেছেন৷ এছাড়া যুক্তরাজ্য থেকে বিস্ফোরক ডিভাইস কেনারও চেষ্টা করেছেন৷ তবে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ জার্মানিতে এই ডিভাইস পাঠানোর চেষ্টা ব্যর্থ করে দেয়৷

শাহীন ও হার্শ ৯এমএম বন্দুক জোগাড়েরও চেষ্টা করেন৷ এক্ষেত্রে তারা রউফের সহায়তা চেয়েছিলেন৷ রউফ অস্ত্র কেনার জন্য অন্য আরেকটি মামলায় অভিযুক্ত ওয়ালিদ খালেদের সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন৷

তবে বন্দুকের দাম বেশি মনে হওয়ায় শাহীন ও হার্শ শেষ পর্যন্ত গাড়ি হামলা চালানোর কথা বিবেচনা করছিলেন বলে কৌঁসুলিরা জানিয়েছেন৷ তাঁরা জানান, ঐ দুজন গতবছরের শেষ দিকে ‘জার্মানিতে ইসলামিস্ট ধারায় উদ্বুদ্ধ হয়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিলেন'৷

কৌঁসুলিরা বলছেন, শাহীন ও হার্শ কোনো  সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত কিনা তা জানতে আরো তদন্ত করতে হবে৷

এদিকে, কেন্দ্রীয় কৌঁসুলির কার্যালয়ের এক বিবৃতি বলছে, সন্দেহভাজন আটকরা এখনো হামলার জন্য নির্দিষ্ট কোনো লক্ষ্য ঠিক করেননি৷

চেজ ভিন্টার/জেডএইচ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন