সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের পরিবারকে তিনগুণ বেশি সাহায্য | বিশ্ব | DW | 21.07.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের পরিবারকে তিনগুণ বেশি সাহায্য

সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ব্যক্তিদের পরিবারগুলো আর্থিক সাহায্য তিনগুণ বাড়িয়েছে জার্মান সরকার৷ এমনকি যাঁরা আগে এ সব হামলার শিকার হয়েছেন, তাঁদের পরিবাররাও এই সাহায্য পাবেন৷

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সাহায্যের পরিমাণ ১০ হাজার ইউরো থেকে বাড়িয়ে ৩০ হাজার ইউরো করা হয়েছে৷ নিহতের স্বামী অথবা স্ত্রী, ছেলে-মেয়ে ও বাবা-মা প্রত্যেকে এই আর্থিক সাহায্য পাবেন৷
শুক্রবার স্থানীয় এক পত্রিকার প্রতিবেদনে এছাড়াও বলা হয়েছে, নিহতের ভাই-বোনেরা ৫ হাজার ইউরোর বদলে প্রত্যেকে পাবেন ১৫ হাজার ইউরো করে৷
এমনকি আগে হয়ে যাওয়া হামলাগুলোতে, যেমন ক্রিসমাস হামলা বা গোপন জঙ্গি সংগঠন এনএসইউ যাঁদের হত্যা করেছে, নিহতের পরিবারের সদস্যদেরও বাড়তি অর্থ পরিশোধ করা হবে৷
এছাড়া পরিবারের সদস্যরা দেশের বাইরে থাকলেও এই অর্থ পাওয়ার যোগ্য হবেন৷ এ বিষয়ক জার্মান কমিশনার এডগার ফ্রাংকে জানিয়েছেন যে, এ পর্যন্ত হামলার শিকার মোট ৩০০ ব্যক্তির পরিবারকে কেন্দ্রীয় সরকার বাড়তি এই অর্থ পরিশোধ করবে৷
এছাড়া কোনো শিশু যদি সন্ত্রাসী হামলায় তাঁর পিতা বা মাতা কাউকে হারায় তাহলে সে অতিরিক্ত এককালীন আরো ৪৫ হাজার ইউরো পাবে৷
২০১৮ সালের বাজেটে এসব অর্থ পরিশোধের জন্য ৮ মিলিয়ন ইউরো থোক বরাদ্দ রাখা হয়েছে, যা গত বছরের তুলনায় ৬.৬ মিলিয়ন বেশি৷
গত বছর ব্যাপক জনরোষের মুখে হামলার শিকার পরিবারগুলোর জন্য একটি সরকারি পদ (কমিশনার ফর ভিকটিমস) তৈরি করে জার্মান সরকার৷
এখন সেই পদে থাকা ফ্রাংকে বলেন, ‘‘জার্মানিতে কোনো দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া বা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে অর্থ সাহায্য দেয়ার বিধান আছে৷ কিন্তু সেগুলো সন্ত্রাসী হামলার জন্য যথোপযুক্ত ছিল না এবং অন্যান্য দেশের তুলনায় যে আর্থিক সাহায্য দেয়া হতো, তাও যথেষ্ট ছিল না৷ তাই আমরা এটি পুনর্মূল্যায়ন করেছি৷''
বার্লিন হামলার আগে ফ্রান্স, স্পেন বা ব্রিটেনের মতো বড় ধরনের কোনো হামলার শিকার হয়নি জার্মানি৷ তাই সেজন্য প্রস্তুতিও ছিল না বলে জানান ফ্রাংকে।



জেডএ/ডিজি (ডিপিএ, কেএনএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন