সন্ত্রাসী হামলায় উত্তর আয়ারল্যান্ডে সাংবাদিক নিহত | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 19.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

আয়ারল্যান্ড

সন্ত্রাসী হামলায় উত্তর আয়ারল্যান্ডে সাংবাদিক নিহত

উত্তর আয়ারল্যান্ডের লন্ডনবেরি শহরের আইরিশ অংশে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলে প্রাণ হারালেন এক সাংবাদিক৷ স্থানীয় পুলিশ এই হামলার পেছনে সন্ত্রাসী উদ্দেশ্য রয়েছে বলে জানিয়েছে৷

আইরিশ জাতীয়তাবাদী গোষ্ঠীদের বহুদিনের দাবি উত্তর আয়ারল্যান্ডকে যুক্তরাজ্য থেকে মুক্ত করে স্বাধীন দেশ প্রতিষ্ঠা করা৷ উল্টোদিকে রয়েছেন, ‘ইউনিয়নিস্ট' বা ঐক্যপন্থিরা, যারা এই বিভাজন চান না৷

নব্বইয়ের দশক থেকেই ঐক্যপন্থি বনাম বিচ্ছিন্নতাপন্থি এই দ্বন্দ্বের অন্যতম কেন্দ্র হয়ে উঠেছে এই লন্ডনবেরি৷

বর্তমানে লন্ডনবেরি শহর ‘আইরিশ' ও ‘ইউনিয়নিস্ট' দুটি অংশে বিভক্ত৷ উল্লেখ্য, এই দুই গোষ্ঠীর মধ্যে এখন পর্যন্ত ঘটেছে বেশ কিছু সংঘর্ষ, যার অন্যতম গত বৃহস্পতিবারের এই ঘটনা৷

লন্ডনবেরি শহরের পুলিশকর্তা মার্ক হ্যামিলটন এ বিষয়ে বলেন, ‘‘আমরা মনে করি, এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা৷ এই ঘটনার পেছনে আইরিশ রিপাব্লিকান আর্মি নামের এক আইরিশ জাতীয়তাবাদী গোষ্ঠী রয়েছে৷''

পরে একটি টুইটও করেন তিনি৷

 

বারবার জাতীয়তাবাদের নিশানা

এর আগে জানুয়ারি মাসে লন্ডনবেরি শহরের আদালত চত্বরে একটি গাড়িবোমা বিস্ফোরিত করে এই গোষ্ঠী৷ সেই ঘটনায় কেউ মারা না গেলেও বৃহস্পতিবারের সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন২৯ বছর বয়সি নারী সাংবাদিক, লাইরা ম্যাককি৷

লন্ডনবেরি শহরের যে অঞ্চলে এই ঘটনা ঘটে, সেই ক্রেগান অঞ্চল মূলত আইরিশ জাতীয়তাবাদীদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত৷

বর্তমানে ‘ব্রেক্সিট' নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে ওঠায় নতুন করে ইন্ধন পাচ্ছে এই দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ৷

এসএস/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন